ঢাকা, বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১, || শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮

মেয়ের সামনেই মাকে পুলিশের কিল-ঘুষি-লাথি!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:০৬, ২০ মে ২০২১ | আপডেট: ১২:১২, ২০ মে ২০২১

পুলিশ কর্তৃক নারীকে নির্যাতনের দৃশ্য, ছবি- এনডিটিভি।

পুলিশ কর্তৃক নারীকে নির্যাতনের দৃশ্য, ছবি- এনডিটিভি।

চলমান কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে মুখে মাস্ক না পরায় এক নারীকে তার মেয়ের সামনেই বেধড়ক কিল-ঘুষি ও লাথি মেরে টেনে হেঁচড়ে নিয়ে যায় একদল পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্য প্রদেশের সাগর জেলায়। এহেন ন্যক্কারজনক ঘটনার ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ঘটনাটি ঘটেছে অতি সম্প্রতি, যখন ওই নারী এবং তার যুবতী মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে কোভিড বিধিনিষেধের মধ্যেই মুদি কিনতে বেরিয়েছিলেন, তখনই মোবাইলে ভিডিওটি ধারণ করা হয়।  

সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করা ওই ভিডিওতে দেখা যায়, কয়েকজন পুলিশ সদস্য ওই নারীকে ধরে বেধড়ক কিল, ঘুষি ও লাথি মেরে টেনে হেঁচড়ে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করছে আর তিনি নিজেকে মুক্ত করার চেষ্টা করছেন। এ সময় তার মেয়েটাও তাকে রক্ষা করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় এবং তিনি বেশ কয়েকবার রাস্তায় পড়ে যান এবং উঠে দাঁড়ানোর জন্য লড়াই করতে দেখা যায় তাকে।

ভিডিওতে একজন নারী পুলিশ কর্মকর্তা ওই নারীকে সরকারি গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করতে দেখা গেছে, তবে তিনি ভিতরে ঢুকতে অস্বীকার করেন এবং তার মেয়ে তাকে পিছনে টেনে আনার চেষ্টা করছেন। এতে তিনি ব্যর্থ হন এবং ওই পুলিশ অফিসার চিৎকার করতে করতে তাকে চুল ধরে টেনে নিয়ে যায়।

ভারতে কোভিড সুরক্ষা বিধি কার্যকর করার সময় পুলিশ সদস্য কর্তৃক লোকজনকে মারধর করার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। মধ্যপ্রদেশে এর আগেও এরকম নির্মম নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছিল। এইতো গত এপ্রিলেই ইন্দোরের এক ব্যক্তিকে দু'জন পুলিশ সদস্য ব্যাপক মারধর করে, শুধুমাত্র তার মুখের মাস্কটি সঠিকভাবে না পরিধানের অভিযোগে!

আর গত এক মাস ধরে ভারতের বিভিন্ন অংশে এরকম ঘটনা ঘটেছে অহরহ। লোকেরা মুখোশ না পরলেই পুলিশ সদস্যদের কর্তৃক রাস্তায় শারীরিক শাস্তি প্রদানের খবর পাওয়া যায় বহু সংখ্যক। সূত্র- এনডিটিভি।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি