ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০, || শ্রাবণ ১ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

রাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় এবার মিলছে না একাধিক আবেদনের সুযোগ

রাবি সংবাদদাতা :

প্রকাশিত : ১৫:১২ ২৮ জুলাই ২০১৯

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষার নিয়মের পরিবর্তনের ফলে ভর্তিইচ্ছুরা তাদের নিজস্ব বিষয়ের বাইরে অন্য ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবেন না। এতে এবার ভিন্ন ভিন্ন ইউনিটে পরীক্ষা দিয়ে বিষয় পরিবর্তন করে বিভিন্ন বিভাগের ভর্তি হওয়ার সুযোগ বন্ধ করল বিশ্ববিদ্যিালয় কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়টির ওয়েবসাইটে দেওয়ার বিজ্ঞপ্তি সূত্রে জানা যায়, মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা ‘এ’ ইউনিটে, ব্যবসার শিক্ষার্থীরা ‘বি’ এবং বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীরা ‘সি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন। এমনকি একজন শিক্ষার্থী কেবল একটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় বসতে পারবেন। এতে বাণিজ্য ও বিজ্ঞান বিভাগ থেকে উত্তর্ণী শিক্ষার্থীদের জন্য বিভাগ পরিবর্তনের সুযোগ এবারই প্রথম হারাতে হচ্ছে। বিজ্ঞান এবং বাণিজ্য বিভাগের শিক্ষার্থীরা যদি মানবিক বিভাগের ‘এ’ ইউনিটে আবেদন করেন তাহলে বাণিজ্য ও বিজ্ঞান বিভাগের ‘বি’ ও ‘সি’ ইউনিটে আবেদন করতে পারবেন না। বাণিজ্য ও বিজ্ঞান বিভাগের ইউনিটে আবেদন করলে হারাতে হবে ‘এ’ ইউনিটে আবেদনের সুযোগ। আবার ‘এ’ ইউনিটে আবেদন করলে হারাতে হবে ‘বি’ ও ‘সি’ ইউনিটে আবেদনের সুযোগ। এর আগে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা বিভাগ পরিবর্তন করে কলা, সামাজিক বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের অধীনে মাধ্যমিক থেকে বাণিজ্যে উত্তর্ণী শিক্ষার্থীরা মানবিকের ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারতেন।

ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতিতে পরিবর্তন নিয়ে ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক লায়লা আরজুমান বানু বলেন, ‘বিভাগ পরিবর্তনের সুযোগ থাকছে না, তা নয়। যারা বিভাগ পরিবর্তন করতে চাইবে তারা আবেদনের সময় পছন্দক্রম অনুযায়ী বিভাগের ক্রম সাজাবেন। তবে পরীক্ষা দিতে হবে যে বিভাগ থেকে উচ্চ মাধ্যমিকে থেকে পাশ করে এসেছেন সে অনুযায়ী। পরীক্ষার নম্বর অনুযায়ী তাদের বিষয় নির্ধারণ করে দেয়া হবে। কিন্তু বিজ্ঞান বা বাণিজ্য পড়ে বাংলা, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষা দেওয়া যাবে না। যে বিভাগ থেকে পাশ করেছে সেই বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হবে।’

জানা যায়, এবারের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বর এমসিকিউ ও লিখিত অংশে সংক্ষিপ্ত ২০টি প্রশ্নে ৪০ নম্বর থাকবে। এমসিকিউ ৬০টির জন্য ৫০ মিনিট এবং লিখিত অংশের জন্য ৪০ মিনিট সময় বরাদ্দ রাখা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে পৌনে এগারোটা ও বারোটা থেকে পৌনে দুইটা পর্যন্ত দুই পর্যায়ে। ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন প্রক্রিয়া আগামী ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। চূড়ান্ত আবেদন ১৭ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর শেষ। প্রথমে ৫৫ টাকা ফি প্রদান করে আবেদন করতে হবে। এরপর প্রাথমিকভাবে উত্তীর্ণদের ১৯৮০ টাকা দিয়ে চূড়ান্ত আবেদন করতে হবে। প্রতি ইউনিটে ৩২ হাজার শিক্ষার্থী অংশ নিতে পারবে। মানবিক বিভাগ থেকে এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষায় ন্যূন্যতম ৩ পয়েন্ট করে মোট ৭.০০, বাণিজ্য বিভাগে সাড়ে তিন করে মোট ৭.৫ এবং বিজ্ঞান বিভাগে ন্যূনতম ৩.৫ করে মোট ৮ পয়েন্ট নির্ধারণ করা হয়েছে।

এমএস/

 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি