ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ১৯ ১৪২৮

সব টাওয়ার বিক্রি করবে রবি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:১৮, ২২ অক্টোবর ২০২১ | আপডেট: ১৫:২৩, ২২ অক্টোবর ২০২১

দেশের দ্বিতীয় শীর্ষ মোবাইল অপারেটর রবি আজিয়াটা তাদের মোট দুই হাজার ৪৭০ টি নেটওয়ার্ক টাওয়ারের সবগুলো বিক্রি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। টাওয়ার ব্যবস্থাপনার ব্যয় কমিয়ে আনতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয় তারা।

রবির পক্ষ থেকে জানানে হয়, মোবাইল অপারেটরদের মধ্যে ভাগাভাগি করে টাওয়ার ব্যবহার, টাওয়ার সামলানোর খরচ কমানো ও এককালীন আয়ের সুযোগ তৈরির জন্যই তারা সব টাওয়ার বিক্রি করে দিতে চায়।

এ বিষয়ে রবির চিফ করপোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অফিসার সাহেদ আলম জানান, বাংলাদেশের বর্তমান বাস্তবতায় মোবাইল অপারেটরদের বিনিয়োগ সুরক্ষায় টাওয়ার ভাগাভাগির কোনো বিকল্প নেই। এ ক্ষেত্রে রবি অনেক আগে থেকেই উদ্যাগ নিয়ে কাজ করে আসছে।

তিনি বলেন, ‘ভাগাভাগির মাধ্যমে টাওয়ার ব্যবস্থাপনার খরচ ও সংখ্যা কমিয়ে এনে সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতেই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।’

এর আগে ২০১৫ সালে ইডটকো নামের একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে রবি তাদের ৫ হাজার ২৫৮টি টাওয়ার বিক্রি করে দেয়। টাওয়ারগুলো বিক্রি করে প্রায় ২ হাজার ১২৫ কোটি টাকা পেয়েছিলো তারা।

২০১৮ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশ  টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) চারটি টাওয়ার কোম্পানিকে লাইসেন্স দেয়। 

টাওয়ার কোম্পানিকে লাইসেন্স দেওয়ার যুক্তি হিসেবে সে সময় বিটিআরসি বলেছিল, ভাগাভাগি করে ব্যবহার নিশ্চিত করতেই টাওয়ার কোম্পানি গঠনের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এতে টাওয়ার বসাতে মোবাইল অপারেটরগুলোর বিপুল বিনিয়োগ প্রয়োজন হবে না। টাওয়ারের অনিয়ন্ত্রিত সংখ্যা ভূমি, বিদ্যুতের ব্যবহার ও পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলে।

তবে টেলিযোগাযোগ সংশ্লিষ্টরা বলছেন, টাওয়ার ভাগাভাগি করে ব্যবহারের জন্য বিটিআরসি যে উদ্যোগ নিয়েছিল, তা এখনো সফল হয়নি। এখন দেশে ২৫ হাজারের মতো টাওয়ার মোবাইল অপারেটরগুলোর হাতে আছে। তার ১৫ শতাংশের মতো ভাগাভাগি হয়। অপারেটরগুলো নিজেরা চাইলে নিজেদের টাওয়ার অন্য অপারেটরকে ব্যবহার করতে দিতে পারে।

দেশে এখন গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিঙ্ক ও টেলিটকসহ মোট চারটি মোবাইল অপারেটর রয়েছে। 

এমএম/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি