ঢাকা, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২০:০১:৪২

Ekushey Television Ltd.

১ ডিসেম্বর ঢাকায় আসছেন সমরেশ মজুমদার  

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:৪৪ পিএম, ২৮ নভেম্বর ২০১৮ বুধবার

আগামী ১ ডিসেম্বর ঢাকায় আসছেন বাংলা সাহিত্যের কালজয়ী ঔপন্যাসিক সমরেশ মজুমদার। এ দিন পাঠকের সঙ্গে দিনভর আড্ডা দেবেন তিনি।       

রাজধানীর বাংলা মোটরে অবস্থিত বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের অষ্টম তলায় অবস্থিত বাতিঘরে এ আড্ডার আয়োজন করা হয়েছে।

আগামী শনিবার বেলা ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত সমরেশ মজুমদার পাঠকদের সঙ্গে এ আড্ডায় অংশ নেবেন। আড্ডা সবার জন্য উন্মুক্ত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাতিঘর কর্তৃপক্ষ।

সোমবার বাংলাদেশের পাঠকদের সঙ্গে আড্ডা প্রসঙ্গে ওই প্রতিষ্ঠানের ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, ‘চট্টগ্রামে গিয়েছিলাম আজ থেকে প্রায় সাড়ে চার বছর আগে। সেখানে প্রায় ১০০ জন পাঠক আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। আমি তাদের অভিনন্দন জানিয়ে ছিলাম। কারণ তারা বাংলা বই পড়েন, আমার বইও পড়েন। এবার আমি যাচ্ছি আবার। ১ ডিসেম্বর ঢাকার বাতিঘরে। আর ৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম বাতিঘরে। আমার আশা, যারা আমার বই পড়েন তারা আসবেন এবং আমার সঙ্গে গল্প-গুজব করবেন। একটা সুন্দর মতবিনিময় করবেন।’

সমরেশের জনপ্রিয় উপন্যাসের মধ্যে ‘অনিমেষ চতুষ্ক’ তার অন্যতম উপন্যাস সিরিজ। এতে রয়েছে উপন্যাস ‘উত্তরাধিকার’, ‘কালবেলা’, ‘কালপুরুষ’ ও ‘মৌষলকাল’ আট কুঠুরি নয় দরজা আঁটা।

মঞ্চ নাটকের প্রতি ভীষণ আসক্ত ছিলেন তিনি। তাই তার প্রথম গল্প ‘অন্যমাত্রা’ লেখা হয়েছিল মঞ্চনাটক হিসেবে। তিনি তার লেখনী শুধু গল্প বা উপন্যাসের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখেননি। ছোটগল্প, ভ্রমণ কাহিনি থেকে শুরু করে কিশোর উপন্যাস সবই এসেছে তার লেখায়।   

উল্লেখ্য, সমরেশ মজুমদার ১৩৪৮ সনের ২৬শে ফাল্গুন, ১০ই মার্চ ১৯৪২ সালে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর শৈশব কেটেছে ডুয়ার্সের গয়েরকাটা চা বাগানে। তাঁর প্রাথমিক শিক্ষা শুরু হয় জলপাইগুড়ি জেলা স্কুল থেকে। তিনি বাংলায় স্নাতক সম্পন্ন করেন কোলকাতার স্কটিশ চার্চ কলেজ থেকে এবং মাষ্টার্স সম্পন্ন করেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

কর্মজীবনে তিনি আনন্দবাজার প্রকাশনার সাথে যুক্ত ছিলেন। গ্রুপ থিয়েটারের প্রতি তাঁর প্রচন্ড আসক্তি ছিলো। তাঁর প্রথম গল্প ‘অন্যমাত্রা’ লেখাই হয়েছিলো মঞ্চনাটক হিসাবে আর সেখান থেকেই তার লেখক জীবনের শুরু। তাঁর লেখা অন্যমাত্রা ছাপা হয়েছিলো দেশ পত্রিকায় ১৯৬৭ সালে। সমরেশ মজুমদারের প্রথম উপন্যাস ‘দৌড়’ ছাপা হয়েছিলো দেশ পত্রিকায় ১৯৭৬ সালে।

তাঁর লেখনী গল্প বা উপন্যাসের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখেননি ছোটগল্প, ভ্রমণ কাহিনী থেকে কিশোর উপন্যাস লেখনীতে তাঁর জুড়ি মেলা ভার। সমরেশ মজুমদারের উল্লেখযোগ্য উপন্যাসগুলির মধ্যে রয়েছে, ‘সাতকাহন’, ‘বুনোহাঁসের পালক’, ‘গর্ভধারিণী’, ‘তেরো পার্বণ’, ‘উজান গঙ্গা’, ‘মোহিনী’, ‘কুলকুণ্ডলিনী’, ‘অনি’, ‘দৌড়সহ অসংখ্য সাড়া জাগানো গ্রন্থ।

তাঁর অসাধারণ লেখনীর শব্দের এই রূপকার জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক অনেক পুরস্কার অর্জন করেছেন। ১৯৮২ সালে আনন্দ পুরষ্কার, ১৯৮৪ সালে সত্য আকাদেমী পুরষ্কার, বঙ্কিম পুরস্কার এবং আইয়াইএমএস পুরস্কার জয় করেছেন। স্ক্রীপ্ট লেখক হিসাবে জয় করেছেন বিএফজেএ, দিশারী এবং চলচিত্র প্রসার সমিতির এওয়ার্ড। সমরেশ কলকাতা, তথা বাংলার সর্বকালের অন্যতম সেরা লেখক হিসাবে বাঙালি পাঠকের কাছে ভীষণ জনপ্রিয়।

কেআই/এসি  

 

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি