ঢাকা, শুক্রবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২২, || মাঘ ১৫ ১৪২৮

৫০ মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা দিল আদি ঢাকা সাংস্কৃতিক জোট

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:২০, ২১ ডিসেম্বর ২০২১

মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানীদের স্মরণ, শ্রদ্ধা আর ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননার মধ্য দিয়ে দুই দিনব্যাপী বিজয় উৎসবের সমাপ্তি টানলো আদি ঢাকা সাংস্কৃতিক জোট। 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ ও বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কে দুই দিনব্যাপী বিজয় উৎসবের আয়োজন করে সংগঠনটি।

যারা দেশমাতৃকার জন্য অকাতরে বিলিয়েছে নিজেদের প্রাণ গানে গানে সেই বীর সেনানীদের স্মরণ করা হয়। বিভিন্ন সংগঠনের দলীয় গান, আবৃত্তি, নৃত্য ও নাটকের পরিবেশনায় জমে ওঠে এ আয়োজন। 

শুরুতে বিজয় উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সারোয়ার হোসেন বাবুর সভাপতিত্বে ছিল আলোচনা সভা। অনলাইনে আলোচনায় যুক্ত হন ঢাকা-৬ আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা এড. কাজী ফিরোজ রশীদ। উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন বীরমুক্তিযোদ্ধা এ এম শফিউর রহমান, বীরমুক্তিযোদ্ধা হাজ্বী মো. জুলহাস মিয়া। আদি ঢাকা সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মানস ঘোষ বাবুরাম ও সাধারণ সম্পাদক হানিফ খান।

জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন শিল্পী ও ৩৫টি সংগঠনের নেতৃবৃন্দের নাচ, গান, নাটক ও আবৃত্তির পরিবেশনায় দুই দিন মেতে ছিল পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্ক। 

আয়োজনে আরও যুক্ত ছিলেন আদি ঢাকা সাংস্কৃতিক জোটের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফজলুর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক নুসরাত ইয়াসমিন রুমপা, বিজয় দিবস উদযাপন কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক আলী আকবর বাবুল, হারুন উর রশীদ, খোরশেদ আলম মাসুদ, নিয়াজ আহমেদ।  ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের শিল্প ও বানিজ্য সম্পাদক ওমর শরীফ পলাশ, উপ-ত্রাণ সম্পাদক শাহজালাল রিপন, উপ-মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন ফালান, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাউসার হক, ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগ নেতা মনির হোসেন হাওলাদার, ফিরোজ আহমেদ, রাহাত হুসাইন।

সভাপতির বক্তব্যে গাজী সারোয়ার হোসেন বাবু বলেন, মহান বিজয় দিবসে বাঙালি জাতির জীবনে তাৎপর্যপূর্ণতা বহন করে। বাঙালি জাতির জন্য এই দিনটি খুবই গর্বের ও আনন্দের। ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে পরাজিত করে মুক্তিকামী বাঙ্গালী এ বিজয় ছিনিয়ে এনেছিল।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে এবং তারই সুযোগ্য কন্যা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালি জাতি আজ বিজয়ের পূর্ণ মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে অর্জিত স্বাধীনতা রক্ষার দায়িত্ব পালন করছেন তারই সুযোগ্য কন্যা। তিনি আছেন বলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ আজ বাস্তবে রূপ নিচ্ছে। আজ জাতির কাছে রাষ্ট্রের সকল উন্নয়নের অগ্রগতি দৃশ্যমান হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজগুলো বাস্তবে রূপ দিতে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন।
কেআই//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি