ঢাকা, শুক্রবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩

ফাইজারের টিকার অনুমোদন দিল বাহরাইন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৩৪, ৫ ডিসেম্বর ২০২০ | আপডেট: ০৯:৩৮, ৫ ডিসেম্বর ২০২০

মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট ফাইজার ও জার্মানের বায়োএনটেকের যৌথভাবে তৈরি করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে বাহরাইন। বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে এই টিকার অনুমতি দিল দেশটি। গত ৩ ডিসেম্বর প্রথম দেশ হিসেবে এই টিকা ব্যবহারের অনুমতি দেয় যুক্তরাজ্য।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) বাহরাইনের জাতীয় স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (এনএইচআরএ) এই টিকার অনুমোদনের কথা জানায়। দেশটির জাতীয় বার্তা সংস্থা বিএনএ’র বরাত দিয়ে এ খবর জানায় আল জাজিরা।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ফাইজার-বায়োএনটেকের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের অনুমোদন দিয়েছে বাহরাইন। এটি উচ্চঝুঁকিপূর্ণ রোগীদের ওপর ব্যবহার করা হবে। তবে কবে নাগাদ এই টিকা ব্যবহার করা শুরু হবে এবং কী পরিমাণ ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে, এমন কিছু জানায়নি বাহরাইন। এ সম্পর্কে ফাইজার-বায়োএনটেক কর্তৃপক্ষও কিছু বলেনি।

তবে, বাহরাইনের জন্য ফাইজারের টিকা পরিবহন ও বিতরণ বড় চ্যালেঞ্জ হবে। কারণ এই টিকা পরিবহন ও সংরক্ষণ করতে হবে মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায়। আর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ বাহরাইনে তাপমাত্রার পারদ ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যায় নিয়মিতই।

করোনাভাইরাস থেকে সেরে উঠতে তিন সপ্তাহের ব্যবধানে ফাইজারের টিকার দুটি ডোজ নিতে হবে। ফাইজারের টিকা ছাড়াও চীনের সিনোফর্মের তৈরি করোনা টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে বাহরাইন। ইতোমধ্যেই অন্তত ৬ হাজার মানুষের ওপর তা ব্যবহারও করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, দ্বীপ রাষ্ট্র বাহরাইনের জনসংখ্যা ১৬ লাখ। এখন পর্যন্ত ৮৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, আর মারা গেছেন অন্তত ৩৪১ জন। ইতোমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮৫ হাজারের বেশি মানুষ।
এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২৩ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি