ঢাকা, সোমবার   ২১ জুন ২০২১, || আষাঢ় ৬ ১৪২৮

করোনাকালে ঋণের চাপে যুবকের আত্মহত্যা

নাটোর প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:২৪, ৬ জুলাই ২০২০ | আপডেট: ১৬:২৫, ৬ জুলাই ২০২০

নাটোরের বড়াইগ্রামে করোনাকালেও অব্যাহত ঋণের কিস্তি পরিশোধের জন্য দেয়া চাপে এক যুবক আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। তাঁর নাম পিটার কস্তা (৪০)। সোমবার ভোরে এই যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। পিটার উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের পারবোর্ণী গ্রামের মৃত শিমন কস্তার ছেলে।

পুলিশ ও স্থাণীয় সূত্রে জানা যায়, পিটার জোনাইল বাজার এলাকায় বিভিন্ন মহাজনের নিকট থেকে চড়া সুদে ঋণ নেয়। সর্বশেষ সাজেদুর রহমানের নিকট থেকেও ঋণ নেয়। এরপর সাজেদুর সম্প্রতি সুদাসলে প্রায় ১০ লাখ টাকা পরিশোধের জন্য চাপ সৃষ্টি করে। এভাবে বিভিন্ন জনের নিকট থেকে তার মোট ঋণ দাড়ায় প্রায় ২৫ লাখ টাকা। এতো টাকা কিভাবে পরিশোধ করবেন এই নিয়ে তিন দিন থেকে পিটার খারাপ আচরণ করতে থাকে। অবশেষে ভোররাতে নিজ বাড়ির গোয়াল ঘরে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিলিপ কুমার দাস সাংবাদিকদের জানান, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে পিটার কস্তা ঋণের চাপে আত্মহত্যা করেছেন। এঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
কেআই/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি