ঢাকা, সোমবার   ০৮ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ২৩ ১৪২৭

জয়পুরহাটে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

জয়পুরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৯:৩৫, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

আদালতে এজলাস চলাকালীন একটি চিত্র

আদালতে এজলাস চলাকালীন একটি চিত্র

জয়পুরহাটে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার দায়ে স্বামী বাবুল সরকারকে (৫০) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশও দেন আদালতের বিচারক। 

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক গোলাম সারোয়ার এ রায় প্রদান করেন। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি এ্যাড. নৃপেন্দ্রনার্থ মন্ডল পিপি এ রায়ের বিষয় নিশ্চিত করেন। 

দণ্ডপ্রাপ্ত বাবুল সরকার গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার তালতলী এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে।
 
মামলার বিবরণসূত্রে জানা যায়, প্রায় ১২ বছর আগে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার মাতাইশ মালঞ্চা গ্রামের তমেজ উদ্দিনের মেয়ে তানজিলার সঙ্গে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার তালতলী গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সরকারের ছেলে বাবুল সরকারের বিবাহ হয়। বিবাহের পর তালজিলা গার্মেন্টসে চাকরি করে জমানো টাকা দিয়ে তার বোনের বাড়ী একই এলাকার রাধাবাড়ীতে ৪ শতক জায়গা ক্রয় করেন। সেখানে একটি বাড়ীও তৈরী করেন তানজিলা। সেই বাড়ীতে স্বামী-স্ত্রী মিলে মাঝে মধ্যে বেড়াতে আসতেন। পরে সেই বাড়ী বিক্রি করাকে কেন্দ্র করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ হয়। এরই জের ধেরে ২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর রাতে সবার অগোচরে স্ত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে স্বামী বাবুল সরকার।

ওই ঘটনায় পরের দিন তানজিলার বোন তৌহিদা বেগম বাদী হয়ে পাঁচবিবি থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ২০১৭ সালের ২২ মে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। মামলার দীর্ঘ শুনানি শেষে বিজ্ঞ আদালতের বিচারক এ রায় প্রদান করেন।

আদালত চত্বরে মামলার বাদী তৌহিদা বেগম বলেন, আদালতের রায়ে আজ আমরা খুশি। তবে ফাঁসি হলে আরও খুশি হতাম এবং আমার বোনের আত্মা শান্তি পেত।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি