ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ২০ ১৪২৭

বিরামপুরে সরকারী রাস্তায় অবৈধ প্রাচীর ভেঙ্গে দিয়েছে প্রশাসন

হিলি প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ২২:৩৭, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার কাটলা বাজারের পার্শ্বে সরকারী রাস্তা অবৈধভাবে দখল করে সেখানে নির্মিত ইটের প্রাচীর (পিলার) ভেঙ্গে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। 

সোমবার বেলা ১১টায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহসিয়া তাবাসসুমের নেতৃত্বে অবৈধভাবে নির্মিত ওই গেটটি ভেঙ্গে দেয়া হয়। গত দুইদিন আগে ১৯ ফেব্রুয়ারী শনিবার রাতে গেটটি নির্মান করে রাস্তার পাশে বসবাসকারী শাহানাজ পারভিন ও তার স্বামী মুকুল সরকারের লোকজন।

বিরামপুর উপজেলা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহসিয়া তাবাসসুম জানান, যেখানে পাকা পিলার নির্মান করা হয়েছে সেটি সরকারী জায়গা। সেখানে অবৈধভাবে দখল করে ইট দিয়ে পিলার নির্মান করা হয়েছিল। সেকারণেই গেটটি ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ১৯ ফেব্রুয়ারী শনিবার ওই স্থানে রাতের আঁধারে সরকারী রাস্তা দখল করে পাকা গেট নির্মান করে রাস্তার পাশে বসবাসকারী শাহানাজ পারভিন ও তার স্বামী মুকুল সরকারের লোকজন। সরকারী রাস্তায় পাকা গেট নির্মানের প্রতিবাদ করায় তফিজ উদ্দিন, লিলি ও লাইলি বেগম নামের দুই নারীসহ তিনজনকে পিটিয়ে আহত করে অবৈধভাবে গেট নির্মানকারীরা। আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এদিকে মারধরকারী অবৈধ দখলদার মুকুল সরকার উল্টো প্রতিবাদকারী ৫ জনের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে থানায় একটি মামলা দায়ের করে। সেই মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ লিলি ও লাইলি বেগম নামের দুই নারীকে আটক করে দিনাজপুর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠায়। এর পরে তারা জামিনে মুক্ত হয়।

হাসপতালে চিকিৎসাধীন তফিজ উদ্দিন অভিযোগ করেন, সরকারী রাস্তা অবৈধভাবে দখলকরে মুকুল সরকার ও শাহানাজ পারভিনের লোকজন সেখানে রাতের বেলা ইট দিয়ে পিলার নির্মান করছিলো। আমরা সেখানে গিয়ে এর প্রতিবাদ করতে গেলে আমাদের মারধর করা হয়। উল্টো তারাই আমাদের নামে থানায় মামলা দিয়ে আমার দুই বোনকে জেলহাজতে পাঠায়, আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

অন্যদিকে সরকারী জায়গা দখলকরে গেট নির্মানে প্রতিবাদ করায় মারধরের শিকার তফিজ উদ্দিনের বড়ভাই নাসির উদ্দিন বাদি হয়ে হামলাকারী ও অবৈধ দখলদার মুকুল সরকার ও শাহানাজ পারভীনসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে গত ২০ ফেব্রুয়ারী বিরামপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। এ মামলার আসামিরা আজ সোমবার কোটে আত্মসমর্পণ করে জামিন প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন দেন।


আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি