ঢাকা, সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ৪ ১৪২৮

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ, নারীসহ আহত ১৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৭:২০, ১২ জুন ২০২১

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন আহতরা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন আহতরা

জুমার নামাজে খতিবের বয়ানকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষে নারীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার (১১ জুন) জুমার নামাজের পর সদর উপজেলার সুহিলপুর ইউনিয়নের গোপীনাথপুর গ্রামে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

আহতদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। আহতদের মধ্যে হাজী গোষ্ঠীর মোশারফ হোসেন (৪০), খায়ের মিয়া (৩৫), রশিদ মিয়া, সিরাজ মিয়া (৬০), রহিজ মিয়া (৬৫), বাহার মিয়া (৫৫), রশিদ মিয়া, জাবের হোসেন (৩৫), ও ভূইয়া গোষ্ঠীর শিপন (৪০), কামাল মিয়া (৫০), এমরান (৩০), হাবিবুল্লাহ (২৫), মরিয়ম (৩০) ও হোসনে আরা বেগমের (৬৫) নাম জানা গেছে। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গোপীনাথপুর গ্রামের হাজী গোষ্ঠী ও ভূইয়া গোষ্ঠীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। শুক্রবার স্থানীয় মসজিদে জুমার নামাজে খতিব মাদক ও সন্ত্রাসবিরোধী বয়ান রাখেন। জুমার নামাজের পর মসজিদ থেকে বের হয়ে ভূইয়া গোষ্ঠীর চুনু মিয়ার ছেলে শিপন মিয়া ও হাজী গোষ্ঠীর রশিদ মিয়ার ছেলে খায়ের মিয়া এ নিয়ে তর্কবিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। তর্কবিতকের একপর্যায়ে দুই গোষ্ঠীর লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে নারীসহ অন্তত ১৫ জন আহত হন। 

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এমরানুল ইসলাম বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি