ঢাকা, রবিবার   ১৯ মে ২০২৪

এবার ধূসর ডিম পেড়ে আলোচনায় আরেক পাতিহাঁস!

ভোলা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:৫০, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

একই উপজেলায় এবার ধূসর ডিম পেড়ে আলোচনায় এই পাতিহাঁস

একই উপজেলায় এবার ধূসর ডিম পেড়ে আলোচনায় এই পাতিহাঁস

ভোলার চরফ্যাসনে একটি দেশি পাতিহাঁস অস্বাভাবিক কালো ডিম পেড়ে ভাইরাল হওয়ার পর এবার অদ্ভুত ধূসর রঙয়ের ডিম পেড়ে আলোচনায় একই উপজেলার আরেক পাতিহাঁস। এ নিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে পুরো এলাকায়।

গত ২১ সেপ্টেম্বর ডিমটি দেখার জন্য উৎসুক মানুষ ভিড় করেন জিন্নানগর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের প্রবাসী আবদুল মন্নান ও তাছলিমা দম্পতির বাড়িতে।

ওইদিন ওই দম্পতির পালিত একটি দেশি পাতিহাঁসই পাড়ে এই কালো ডিম! পরদিন আরো একটি কালো ডিম দেয় হাঁসটি। টানা দু’দিন কালো রংয়ের ডিম পেড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করার পর হঠাৎ করেই শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) থেকে ডিম পাড়া বন্ধ করে দিয়েছে তাসলিমা বেগমের পালিত পাতিহাঁসটি।

হাঁসটির মালিক প্রবাসী আবদুল মতিন জানান, তার খোয়াড়ে পালিত ১১টি দেশি হাঁসের মধ্যে ৮ মাস বয়সী একটি হাঁস এই প্রথম দুটি কালো ডিম দিয়েছে। কালো রঙয়ের ডিম দেখে প্রথমে ভয় পেয়ে যান তিনি। পরে ডিমটি বাড়ির অন্যদের দেখান। মুহূর্তের মধ্যে কালো ডিমের খবর গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে তা দেখতে বাড়িতে ভিড় জমায় গ্রামের উৎসুক মানুষ।

তবে, টানা দু’দিন পরপর দুটি কালো রঙয়ের ডিম পাড়ার পর হঠাৎ করে ডিম পাড়া বন্ধ করে দেয় হাঁসটি। যা নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে দেখা দিয়েছে কৌতূহল। 

এদিকে তাসলিমা বেগমের হাঁসটি ডিম পাড়া বন্ধ করে দিলেও এবার অদ্ভুত ধূসর রঙয়ের ডিম পাড়া শুরু করেছে একই উপজেলার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আকতারুল আলম সামুর বাড়িতে পালিত একটি পাতিহাঁস। এর আগে হাঁসটি স্বাভাবিক ডিমই পেড়েছিল বলে জানান কাউন্সিলর আকতারুল আলম।

এদিকে, ভোলার একই উপজেলায় পরপর এমন দুটি আলোড়ন সৃষ্টিকারী ঘটনা ঘটায় চিন্তিত প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরও।

এ বিষয়ে চরফ্যাশন উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের উপ-সহকারী কর্মকর্তা শংকর কৃষ্ণ দাস বলেন, হঠাৎ করে তাসলিমা বেগমের পালিত হাঁসটি পরপর দু’দিন কালো রঙয়ের ডিম পেড়ে আলোড়ন সৃষ্টি করে। কিন্তু হঠাৎ করে আবার দু’দিন ধরে ওই হাঁসটি আর ডিম পাড়ছে না। আবার গতকাল থেকেই সেই একই উপজেলার আরেকটি পাতিহাঁস ধূসর রঙয়ের ডিম পাড়া শুরু করেছে। এর কারণ কি তা তো বুঝা মুশকিল। আমি এ বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ইন্দ্রজিৎ কুমার মণ্ডল বলেন, ঠিক কি কারণে চরফ্যাশনের দুটি হাঁস এমন ডিম পেড়েছে, তা নিয়ে আমরা বেশ চিন্তিত। আমরা দুটি হাঁসেরই স্যাম্পল কালেকশন করে পরীক্ষাগারে পাঠিয়ে এর কারণ উদঘাটনের চেষ্টা করব।

এনএস//


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি