ঢাকা, রবিবার   ১৯ মে ২০২৪

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, আহতরা হাসপাতালে ভর্তি

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৮:৫৮, ১৪ নভেম্বর ২০২২

ঠাকুরগাঁওয়ে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন। আহতদের ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

রোববার (১৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় বড় মাঠে এই ঘটনা ঘটেছে। তবে আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

দর্শকদের অভিযোগ, খেলার মাঠে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করা হয়।

জেলা ক্রীড়া অধিদপ্তরের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান বাবু জানান, রোববার বিকালে জেলা স্কুল বড় মাঠে আজাদ ক্লাব বনাম জাগ্রত যুব সংঘের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। ৯০ মিনিটের খেলায় জাগ্রত যুব সংঘ দুই ও আজাদ ক্লাব এক গোল দেয়। খেলার সময় শেষ হলে রেফারি লস্ট টাইম দুই মিনিট সময় বাড়িয়ে দেয়। দুই মিনিটের মধ্যে আজাদ ক্লাব একটি গোল দেয়। কিন্তু লাইসম্যান অফ সাইড দেয়। 

সেটিকে অফ সাইড মেনে নিতে পারেনি আজাদ ক্লাবের দর্শকরা। এই নিয়ে উত্তোজিত জনতা লাইসম্যানকে ঘিরে রাখে। এসময় উৎসুক জনতা মাঠে প্রবেশ করে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের পরে ফের মাঠের বাইরে কিছু লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত হন। আহতদের গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে  ঠাকুরগাঁও জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

খেলা দেখতে আসা অনেকেই জানান, খেলার মধ্যে হার-জিত থাকবেই। কিন্তু খেলার মধ্যে যেভাবে দুই পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারামারি করলো তাতে বুঝা যাচ্ছে এটা পূর্বপরিকল্পিত। দ্রুত অপরাধীর আইনের আওয়াতায় এনে কঠোর শাস্তি দেওয়া কথা জানান দর্শকরা।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন জানান, শহরের জাগ্রত যুব সংঘ ও আজাদ ক্লাবের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলার এক পর্যায়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। খবর পেয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে পুলিশ। 

এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ওসি।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি