ঢাকা, রবিবার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, || ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭

ঝাঁলমুড়ি খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে আহত কিশোরের মৃত্যু

নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:০৩, ১৬ এপ্রিল ২০২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ম্যাপ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর ম্যাপ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে ঝাঁলমুড়ি খাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত রজব আলী (১৬) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। দুইদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গত বুধবার (১৫ এপ্রিল) গভীর রাতে ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কিশোরটি মারা যায়। সে উপজেলার চাতলপাড় ইউয়িনের ইউছুফ মিয়ার ছেলে। 

বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) বিকালে আহত কিশোরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন চাতলপাড় পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রঞ্জন কুমার।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ এপ্রিল রাতে স্থানীয় ইউপি সদস্য করিম মেম্বারের বাড়ির পাশে শহিদুল্লাহর দোকানে দুই বন্ধু রুবেল মিয়া ও জসিম মিয়া ঝাঁলমুড়ি খেতে বসে। এ সময় একজন আরেকজনের সাথে খুনসুটিতে মেতে ওঠে। এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের হাতাহাতি শুরু হয়। পরে স্থানীয়দের হস্তক্ষেপে উভয় পক্ষ যার যার বাড়িতে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর জসিম মিয়া রুবেলের বাবার কাছে বিচার দিয়ে আসে। বিষয়টি জানতে পেরে রুবেল জসিমকে মারধর করে। পরে উভয়পক্ষের লোকজন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হলে রুবেল মিয়া মারাত্মকভাবে আহত হয়। ওই দিন রাতেই রুবেলকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই রাতেই ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ এপ্রিল গভীর রাতে রুবেলের মৃত্যু হয়।

এদিকে কিশোরের মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে উভয়পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। বুধবার রাতে ও বৃহস্পতিবার সকালেও দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে চাতলপাড় তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় উভয়পক্ষের অন্তত ৮-১০ জন আহত হয়। চলে প্রতিপক্ষের বাড়িতে লুটপাটও। এ ঘটনায় এলাকায় চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। 

মারাত্মক দুইজনকে আহত অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজে আইসিউতে আছে। তারা হলেন- ইয়াছিন (৫৫) পিতা-শিশু মিয়া, শহিদুল্লাহ মিয়া (৪২) পিতা নাসিরুদ্দিন মিয়া।

চাতলপাড় পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রঞ্জন কুমার জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাদের সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে আহত কিশোর ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। লাশ ময়নাতদন্তের পর দাফন সম্পন্ন হবে।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি