ঢাকা, মঙ্গলবার   ২১ মে ২০২৪

প্রকৌশলীদের চাকরিজীবী হলে চলবে না : আইনুন নিশাত

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৫৩, ২৬ মে ২০১৮

প্রকৌশলীদের চাকরিজীবী না হয়ে উদ্যোক্তা হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন পানি বিশেষজ্ঞ ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ইমেরিটাস ড. আইনুন নিশাত। তিনি বলেছেন, দেশের বহু বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক বিষয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ানো হচ্ছে। তবে তারা কোনো ছাত্র-ছাত্রীকে উদ্যোক্তা হতে শেখায় না। চাকরি করা শেখায়। বর্তমানের উদিয়মান ও তরুণ প্রকৌশলীদের চাকরি ভুলে উদ্যোক্তা হতে হবে।
গতকাল শুক্রবার ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউট অব বাংলাদেশে- আইইবি সেমিনার হলে তরুণ প্রকৌশলীদের সংগঠন ইয়াং ইঞ্জিনিয়ার্স সোসাইটির (ইয়েস) আয়োজনে এক সেমিনার ও ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।
আইনুন নিশাত বলেন, শাহবাগে আজ দেশের সবচেয়ে বড় ফুলের মার্কেট। এই ফুলের মার্কেটের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন ছিলেন একজন প্রকৌশলী। কোথাও চাকরি না পেয়ে একটি দোকান দিয়েছিলেন। পরে ফুল অনেক বিক্রি হওয়া দেখে অন্যরাও দোকান বসানো শুরু করেন। এর মধ্যে চাকরি হওয়ায় প্রতিষ্ঠাতা দোকান বন্ধ করে চাকরিতে যোগদান করলেন। এখন কোনো ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠান উদ্যোক্তা হতে শেখায় না। তারা চাকরি করা শেখায়। তবে একমাত্র আর্কেটিকচার বিভাগ ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্যোক্তা হতে শেখায়।
তিনি বলেন, এখন ধান চাষের জন্য নতুন নতুন মেশিন তেরি করছে বগুড়ার মানুষ। আবার একটি মেশিন বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। সেটার অবিকল যন্ত্রাংশ তৈরী করছে ঢাকার ধোলাইরপাড়ের কারিগররা। এই মেধাগুলোর পাশে যদি কোনো প্রফেশনাল প্রকৌশলী গিয়ে দাঁড়াতো, তারা যদি এই ব্যবসা শুরু করতে তাহলে অবশ্যই বাংলাদেশ শিল্পে অনেক উন্নত হতো।
আইইবি সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী শামীম-উজ-জামান বসুনিয়ার সভাপতিত্বে সেমিনারে আরো উপস্থিত ছিলেন- আইইবি সহকারী সম্পাদক প্রকৌশলী শেখ আল আমিন, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি সাবেক ভিসি অধ্যপক ড. প্রকৌশলী রেজওয়ান খান, কৃষিবিদ গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম সরকার, বুয়েটের যন্ত্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মো. ইসহাক, বুয়েটের পানি সম্পদ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান-ম্যাকানিক্যাল ডিভিশন অধ্যাপক ড. সাব্বির মোস্তফা খান, প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম।
/ এআর /


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি