ঢাকা, সোমবার   ১৪ জুন ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

গণপরিবহনে মাস্ক না পরলে ১০০ পাউন্ড জরিমানা ইংল্যান্ডে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:১৫, ১৫ জুন ২০২০ | আপডেট: ১৬:১৮, ১৫ জুন ২০২০

লকডাউন তুলে দিয়ে দোকানপাট খুলে দেশকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড। এর সঙ্গে সঙ্গে বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বিধিনিষেধও কঠোর করছে দেশটি। গণপরিবহনে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে দেশটিতে। কেউ মাস্ক ছাড়া থাকলে গুনতে হবে জরিমানা। বিবিসি

সোমবার থেকে দেশটিতে গণপরিবহনে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বাস, কোচ, ট্রেন, ট্রাম, টিউব, ফেরি অথবা প্লেন-যেকোনো কিছুতে চড়তে অবশ্যই মাস্ক পরা থাকতে হবে যাত্রীদের। এই বিধিনিষেধ অমান্য করলে ব্রিটিশ নাগরিকদের ১০০ পাউন্ড জরিমানা দিতে হবে। 

জনগণ যাতে এই বিধিনিষেধ ঠিকভাবে মেনে চলে সেজন্য বাস এবং রেলস্টেশনগুলোতে তিন হাজারের বেশি অতিরিক্ত কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে। এদের মধ্যে পুলিশের কর্মকর্তারাও রয়েছেন।

ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ জানায়, যারা মাস্ক পরে থাকবে না তাদেরকে পরতে বলা হবে। তারপরও যদি তারা মাস্ক না পরে তাহলে তাদের গণপরিবহনে চড়তে দেয়া হবে না। এমনকি তাদের ১০০ পাউন্ড পর্যন্ত জরিমানা করা হতে পারে।

এক্ষেত্রে কোন বাধ্যবাদকতা নেই, যাত্রীরা যে কোন মাস্ক পরতে পারবেন। কাপড়ের তৈরি মাস্কও পরতে পারবে। এমনকি ঘরে বানানো মাস্ক বা ব্যানডানাও ব্যবহার করা যেতে পারে মুখমণ্ডল ঢেকে রাখার জন্য। 

তবে যাদের কিছু বিশেষ শারীরিক সমস্যা আছে, যাদের শারীরিক অক্ষমতা রয়েছে এবং যাদের বয়স এগারো বছরের কম তাদের জন্য এই বিধিনিষেধ শিথিল থাকবে।

এই বিধিনিষেধ এখন পর্যন্ত ইংল্যান্ডেই চালু হয়েছে। যুক্তরাজ্যের স্কটল্যান্ড, ওয়েলস এবং নর্থ আয়ারল্যান্ডে এখনো মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়নি।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি