ঢাকা, সোমবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

মিশুক হওয়ায় বাপ-ভাইয়ের হাতে মেয়ে খুন!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:৫৪, ১২ আগস্ট ২০২০

প্রতিবেশীদের সঙ্গে মেলামেশা পছন্দ ছিল না বাবার। বারণ করেছিলেন। কিন্তু সে কথা না মানায় শ্বাসরোধ করে মেয়েকে হত্যা করা হয়। অভিযোগ উঠেছে বাবা ও বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে। ইতোমধ্যে তাদেরকে গ্রেফতারও করেছে কলকাতা পুলিশ।

জানা যায়, মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) রাতে প্রতিবেশীরা চিৎকার চেঁচামেচির আওয়াজ শুনতে পান। তাদের অভিযোগ, কিশোরী মেয়ে ফুল কুমারীকে (১৮) মারধোর করত তার পরিবার। 

এদিকে, প্রাথমিক তদন্তের পর চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিশ জানিয়েছে, ওই কিশোরীর কোনও যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যা মানতে পারেনি তার পরিবার। সম্ভবত সেই কারণেই মারধোর করা হয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গতরাতে ওই কিশোরীকে তার বড় ভাই ও এলাকার লোকজন অচৈতন্য অবস্থায় শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই কিশোরীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। জানান, আগেই মৃত্যু হয়েছে তার। ওই কিশোরীর গলায় ফাঁসের চিহ্ন রয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। খুনের অভিযোগের ভিত্তিতে বাবা জয়রাম রায় ও বড় ভাই সুবোধ রায়কে গ্রেফতার করেছে শ্রীরামপুর থানায় পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে প্রতিবেশীদের।

এই ঘটনায় স্থানীয় প্রাক্তন কাউন্সিলর বলেন, দিন দশেক আগে নতুন মাহেশ এলাকায় আসেন রিষড়া গ্লাস কারখানার কর্মী জয়রাম। মেয়ে ফুল কুমারী খুবই মিশুকে ছিল। কিন্তু পরিবারের বাকিরা এলাকার লোকজনের সঙ্গে খুব একটা মিশতো না। মেয়ে বাইরের কারও সঙ্গে কথা বললে অশান্তি করত।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি