ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৬ জুলাই ২০২৪

ভারতীয় রোভার চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সালফার উপস্থিতি নিশ্চিত করেছে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:৩২, ৩০ আগস্ট ২০২৩

ভারতের চন্দ্রযান রোভার চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে সালফারের উপস্থিতি নিশ্চিত করেছে। দেশটির মহাকাশ সংস্থা এ কথা জানিয়েছে।

গত সপ্তাহে, ভারতই প্রথম দেশ যেটি বৃহৎভাবে অনাবিষ্কৃত দক্ষিণ মেরুর কাছে একটি নৌযান অবতরণ করেছে এবং এর মাধ্যমে চাঁদে অবতরণকারী চতুর্থ দেশের অবস্থানে পৌঁছালো ভারত।

ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ইসরো) সোমবার জানিয়েছে, ‘চন্দ্রযান-৩ রোভারের লেজার-ইনডুসড ব্রেকডাউন স্পেকট্রোস্কোপি (এলআইবিএস) যন্ত্রটি দক্ষিণ মেরুর কাছে চন্দ্র পৃষ্ঠের মৌলিক গঠনের উপর প্রথমবারের মতো ইন-সিটু (সরাসরি উপাত্ত নিয়ে) পরিমাপ করেছে।’

এতে বলা হয়, ‘এই ইন-সিটু পরিমাপগুলো দ্ব্যর্থহীনভাবে অঞ্চলে সালফারের উপস্থিতি নিশ্চিত করে, যা অরবিটার গুলোতে থাকা দূরবর্তী যন্ত্রগুলোর মাধ্যমে সম্ভব ছিল না।’

ইসরো বলেছে, বর্ণালী বিশ্লেষণ এছাড়াও চন্দ্র পৃষ্ঠে অ্যালুমিনিয়াম, ক্যালসিয়াম, লোহা, ক্রোমিয়াম এবং টাইটানিয়ামের উপস্থিতি নিশ্চিত করেছে, যা অতিরিক্ত পরিমাপের সাথে ম্যাঙ্গানিজ, সিলিকন এবং অক্সিজেনের উপস্থিতি দেখায়।
ছয় চাকার সৌর-চালিত রোভার প্রজ্ঞান (সংস্কৃতে) অর্থাৎ ‘উইজডম’ মানচিত্রহীন দক্ষিণ মেরুর চারপাশে ঘুরে বেড়াবে এবং এর দুই সপ্তাহের আয়ুষ্কালে ছবি ও বৈজ্ঞানিক তথ্য প্রেরণ করবে।

চার বছর আগে, পূর্ববর্তী ভারতীয় চন্দ্র অভিযান তার চূড়ান্ত অবতরণের সময় ব্যর্থ হয়েছিল, যা সেই সময়ে প্রোগ্রামের জন্য একটি বিশাল ধাক্কা হিসেবে দেখা হয়েছিল।

চন্দ্রযান-৩ প্রায় ছয় সপ্তাহ আগে হাজার হাজার দর্শকের সামনে উৎক্ষেপণের পর থেকে জনসাধারণের মনোযোগ আকর্ষণ করেছে এবং একটি রাশিয়ান ল্যান্ডার বিধ্বস্ত হওয়ার কয়েকদিন পরে গত সপ্তাহে চন্দ্রযান-৩  চাঁদে এর সফল অবতরণ করে।

কেআই//


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted







© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি