ঢাকা, বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১, || শ্রাবণ ১২ ১৪২৮

মামুন ভাই, স্ক্রিপ্ট তো রেডি…

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:২১, ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মামুন (একুশে টেলিভিশনের সিনিয়র রিপোর্টার) ভাইয়ের সঙ্গে কখনো ছবি তোলা হয়েছে কি না মনে করতে পারছি না। অফিসে ছিলেন একজন ভালো সহকর্মী। না, সেই অর্থে অফিসে মামুন ভাইয়ের সঙ্গে বন্ধুসুলভ কোনো সম্পর্কও ছিলো না।

ছিলো বাহিরে। কতোবার টিএসসিতে একসঙ্গে বসে চা খেয়েছি, আড্ডা মেরেছি তার শেষ নেই। স্বপন ভাইয়েরে দোকানে চায়ের বিল দেওয়া নিয়ে সে কি তুমুল প্রতিযোগিতা। অবশেষে স্বপন ভাই নিজেই ঠিক করে দিতেন, কোন দিন কে বিল দেবে।

আর আমরা কোন দিন টিএসসি যাবো তা অফিসে বলা হয়ে যেতো ইশারাতেই। ব্যাস তারপর দীর্ঘ আড্ডা। মামুন ভাই যেহেতু ‘রাষ্ট্রপতি’ এবং ‘প্রধানমন্ত্রী’ বিট করতেন তাই মাঝে মাঝেই ফোনে তার কাছ থেকে স্ক্রিপ্ট নিতে হতো।

ফোন করলেই বলতো পার্সোনাল না অফিসের ফোন থেকে ফোন করেন, আমি বলতাম ভাই ওটার কথা আমি বুঝি না, তাছাড়া আবার ডায়াল করতে গেলে দেরি হয়ে যাবে, আপনি ঝটপট বলে ফেলুন। ব্যাস স্ক্রিপ্ট রেডি।

মামুন ভাই স্ক্রিপ্ট তো রেডি। কিন্তু আপনাকে এতো তাড়াতাড়ি বিদায় জানানোর জন্য আমরা তো রেডি ছিলাম না। কি এতো তাড়া ছিলো এই স্ক্রিপ্ট এতো তাড়াতাড়ি রেডি করবার। কি অভিমানে এই চলে যাওয়া। কেন ঘর ছেড়ে ঘর বাঁধা ওই দুর নক্ষত্রের দেশে।

ওখানে কি এমন সবুজ শ্যামলিমা, এমন নদী, সোনার মত ধান আর রুপোর মত চাল পাওয়া যায়? আচ্ছা ওখানে কি চা পাওয়া যায়, তাহলে কোন উঁচু দেয়ালে পা ঝুলিয়ে বসে আবার একসঙ্গে চা খেতে খেতে সুখ-দুঃখের গল্প করতে পারতাম...

ওপারে ভালো থাকবেন মামুন ভাই, আর কখনো বলবো না ‘হ্যালো মামুন ভাই, আজ আওয়ামী লীগের কোনো প্রোগ্রাম আছে নাকি??

না আর কখনোই বলবো না, কখনোই না....

(এস এম মফিউরের ফেসবুক থেকে নেওয়া)

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি