ঢাকা, সোমবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৮

সার্চ কমিটি করেই নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে: প্রধানমন্ত্রী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:২৯, ৪ অক্টোবর ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সার্চ কমিটি করেই নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে। মানুষের আস্থা-বিশ্বাস নিয়েই আওয়ামী লীগ ভোটের মাধ্যমে ক্ষমতায় থাকতে চায়। নির্বাচনকে নির্বাচনের মতো করেই দেখে দলটি।

সোমবার (৪ অক্টোবর) বিকেলে গণভবনে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে অংশগ্রহণ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় তিনি উল্লেখ করেন, নির্বাচনে কোন দল প্রতিযোগিতা করবে, সে বিষয়ে ভাবে না আওয়ামী লীগ। আদর্শগতভাবে শক্তিশালী রাজনৈতিক প্রতিপক্ষই আশা করে যে কোনো রাজনৈতিক দল।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, জনগণের কাছাকাছি থাকার জন্য আওয়ামী লীগে সাংগঠনিক কার্যক্রম চলমান থাকবে। দল হিসেবে আওয়ামী লীগ সব সময় দেশ গড়া ও নির্বাচনের প্রস্তুতি, দুটোই একই সাথে চালিয়ে নিয়ে যায়।

নানান রাজনৈতিক দল ও একাত্তরের অপশক্তির ষড়যন্ত্রের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এসব জেনেই এ পথে চলছেন তিনি। যতক্ষণ শ্বাস আছে, ততক্ষণ দেশের জন্য কাজ করে যাবেন।

নিজের ওপর বার বার হত্যাচেষ্টার কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, এতবার মারার চেষ্টা হয়েছে, মরি নাই৷ এটাই তাদের দুঃখ। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হওয়া প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানান, নিয়ম অনুসারে রাষ্ট্রপতির আদেশে সার্চ কমিটি করেই নতুন নির্বাচন কমিশন গঠিত হবে।
 
এর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাষ্ট্রপতি সবার সঙ্গে আলোচনা করে সার্চ কমিটি গঠনের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন। 'নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ থাকলে নির্বাচনও নিরপেক্ষ থাকবে' বলে মন্তব্য করেন তিনি। রোববার (০৩ অক্টোবর) বেলা ১২টায় মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলায় পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় লিজ দলিল হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

এদিকে কে এম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশনের (ইসি) মেয়াদ শেষ হবে আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতে। সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় দরকার হবে নতুন কমিশন গঠনের। নতুন কমিশনের অধীনেই হবে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। পরবর্তী নির্বাচন কমিশন গঠনের এখনো চার মাসের বেশি সময় অবশিষ্ট থাকলেও রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক অঙ্গনে এনিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। নতুন কমিশন গঠনের আগাম প্রস্তুতি হিসেবে কিছু প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে গেছে।

সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন কমিশনের নিয়োগকর্তা রাষ্ট্রপতি। ‘সার্চ কমিটি’র সুপারিশের মাধ্যমে বিগত দুটি নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছে। ওই দুটি কমিশন নিয়োগের আগে রাষ্ট্রপতি দেশের সর্বোচ্চ আদালতের বর্তমান প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে দুটি সার্চ কমিটি গঠন করেছিলেন। ওই দুটি সার্চ কমিটির সুপারিশে গঠিত হয়েছিল রকিবউদ্দিন কমিশন ও নুরুল হুদা কমিশন।   

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি