ঢাকা, বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১, || ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭

ছবিই ইতিহাস

সেলিম জাহান

প্রকাশিত : ২১:৩৯, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১

বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. সেলিম জাহান কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেছেন। সর্বশেষ নিউইয়র্কে জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির মানব উন্নয়ন প্রতিবেদন দপ্তরের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এর আগে বিশ্বব্যাংক, আইএলও, ইউএনডিপি এবং বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশনে পরামর্শক ও উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন। তার প্রকাশিত উল্লেখযোগ্য বই- বাংলাদেশের রাজনৈতিক অর্থনীতি, অর্থনীতি-কড়চা, Freedom for Choice প্রভৃতি।

ত্রিশ বছর আগের কথা- ১৯৯১ সালের ২২ ফেব্রুয়ারী। ঢাকায় প্রকাশনা উৎসব বসেছে অধ্যাপক আজিজুর রহমান খান (অধ্যাপক এ. আর. খান) এবং প্রয়াত ড. মাহবুব হোসেন এর নবতম বই The Strategy of Development in Bangladesh. অনুষ্ঠান হচ্ছিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনের এ্যানেক্স ভবনের দোতালায়।

প্রথম ছবিতে প্রকাশনা উৎসবে সংশ্লিষ্ট বইয়ের ওপরে আলোচনা করছি। মঞ্চে উপবিষ্ট সভার সভাপতি প্রয়াত অধ্যাপক তাহেরুল ইসলাম। সঙ্গে আছেন লেখকদ্বয় অধ্যাপক এ. আর. খান এবং প্রয়াত ড. মাহবুব হোসেন এবং সহ-আলোচক অধ্যাপক ওয়াহিদউদ্দীন মাহমুদ।

দ্বিতীয় ছবিতে দর্শক-শ্রোতাদের মধ্যে আছেন প্রথম সারিতে বাঁ দিক থেকে অধ্যাপক আইয়ুবুর রহমান ভূঁইয়া, অধ্যাপক বরকত-এ-খুদা, ড. সালেহ উদ্দীন আহমেদ ও অধ্যাপক মমতাজউদ্দীন আহমেদ। 

দ্বিতীয় সারিতে বাঁ দিক থেকে অধ্যাপক এম. এম. আকাশ, প্রয়াত অধ্যাপক মুলকুতুর রহমান, অধ্যাপক হারুনুর রশীদ খান (বাঁ থেকে চতুর্থ), অধ্যাপক নজরুল ইসলাম (বাঁ দিক থেকে ষষ্ঠ)। তৃতীয় সারিতে বাঁ দিক থেক অধ্যাপক ডালেম চন্দ্র বর্মণ। অন্য কাউকে আমি ঠিক চিনতে পারিনি- আমারই অক্ষমতা।

কে বলে ছবি কথা বলে না? এই তো কত জনকে ছবিতে দেখতে পাচ্ছি, যাঁরা তখন ছিলেন, আজ আর নেই। আসলে ছবিই তো ইতিহাস।

এনএস/


** লেখার মতামত লেখকের। একুশে টেলিভিশনের সম্পাদকীয় নীতিমালার সঙ্গে লেখকের মতামতের মিল নাও থাকতে পারে।
Ekushey Television Ltd.

টেলিফোন: +৮৮ ০২ ৮১৮৯৯১০-১৯

ফ্যক্স : +৮৮ ০২ ৮১৮৯৯০৫

ইমেল: etvonline@ekushey-tv.com

Webmail

জাহাঙ্গীর টাওয়ার, (৭ম তলা), ১০, কারওয়ান বাজার, ঢাকা-১২১৫

এস. আলম গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠান

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি