ঢাকা, বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ১৩ ১৪২৭

অর্থাভাবে নিভে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী মীনাক্ষীর জীবন প্রদীপ  

গবি সংবাদদাতা 

প্রকাশিত : ১২:১১, ২৪ নভেম্বর ২০২০

দুরন্তপনা আর বিশ্বজয়ের স্বপ্ন আজ হাসপাতালের বেডে নিথর দেহে শুয়ে আছে। স্বপ্নগুলো আজ হারিয়ে, নিথর দেহে নীরবতায় বেচে থাকার প্রার্থনা করছে গণ বিশ্ববিদ্যায়ের (গবি) মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের ৩৭তম ব্যাচের ছাত্রী মীনাক্ষী চাকমা। 

দীর্ঘদিন ধরে পিত্তথলিতে পাথর এবং কিডনি সমস্যায় ভুগছেন তিনি।  জরুরি ভিত্তিতে তার অপারেশন করাতে প্রয়োজন প্রায় চার লাখ টাকা। তবে পাহাড় সমান আর্থিক সমস্যায় বিপাকে মীনাক্ষীর পরিবার। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) সাংবাদিকদের এসব কথা জানায় তার পরিবার।  

জানা যায়, ৪ লাখ টাকার মধ্যে তার পরিবার ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জোগাড় করতে সক্ষম হয়েছে। তার চিকিৎসার সম্পূর্ণ খরচ পরিবার-পরিজনের পক্ষে বহন করা কষ্টকর হয়ে দাঁড়িয়েছে। মীনাক্ষীকে বাঁচাতে আর্থিকভাবে সহযোগিতা করে মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছেন তার বন্ধু-স্বজন। 

মীনাক্ষী চাকমার বড় ভাই সুদীপ চাকমা জানান, ‘বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পর চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন মীনাক্ষীর কিডনিতে দুইটি ও পিত্তথলিতে একটি মোট তিনটি পাথর রয়েছে। খুব দ্রুত যদি অপারেশন না করা হয় তাহলে কিডনি নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’

সুদীপ আরও বলেন, '‘চিকিৎসক আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে মীনাক্ষীকে হাসপাতালে অপারেশনের জন্য ভর্তি এবং ৩ ডিসেম্বরের মধ্যে অপারেশন সম্পন্ন করার পরামর্শ দেন।’

এদিকে মীনাক্ষীর বিশ্ববিদ্যালয়ের বন্ধুরাও অর্থ সংগ্রহের চেষ্টা করছে বলে জানা যায়। মীনাক্ষীর বন্ধু মুশফিকুর রহমান শাওন বলেন,  ‘অর্থের অভাবে মীনাক্ষী আমাদের ছেড়ে চলে যেতে পারে না। আমরা মীনাক্ষীকে হেরে যেতে দিব না। আমরা, আপনারা একটু চাইলেই মীনাক্ষীর জীবন প্রদীপটা আবারো জ্বালিয়ে দিতে পারি।’

মীনাক্ষীকে সহযোগিতায় : সুদীপ চাকমা- ০১৬৭৫৯১১৫৪৫ (বিকাশ- পার্সোনাল), ০১৭২১৬৩৮৭৩৮ (নগদ, বিকাশ-পার্সোনাল), ০১৬৮২৯৩৭৯০৩ (রকেট একাউন্ট)। 
 
এছাড়া ব্যাংকের মাধ্যমেও সহযোগিতার জন্য মুশফিকুর রহমান ( অ্যাকাউন্ট নম্বর : ২৭০১০৫০০০১৮৬৯), ডাচ বাংলা ব্যাংক।  
এআই/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি