ঢাকা, শনিবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

কাশ্মীর ইস্যু: ফের সহযোগিতার আশ্বাস ট্রাম্পের

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:১০ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প বলেছেন, কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে ভারত ও পাকিস্তান চাইলে আমেরিকা সবধরনের সহযোগিতা করবে। 

তিনি বলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে দু’সপ্তাহ আগেও উভয় দেশের মাঝে যে উত্তপ্ত অবস্থা ছিল, বর্তমানে তা কিছুটা প্রশমিত হয়েছে। এর কারণ হিসেবে তিনি প্রতিবেশি দেশগুলোতে সাহায্যের প্রস্তাবকে উল্লেখ করেছেন। 

সোমবার হোয়াইট হাউস থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, ‘আপনারা জানেন যে কাশ্মীর নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের দ্বন্দ্ব চলছে। আমি মনে করি তাদের মাঝে চলমান উত্তেজনা পূর্বের তুলনায় কিছুটা কমেছে। দীর্ঘদিন থেকে চলা এ সমস্যা সমাধানে আমি উভয়কে সহায়তা করতে চাই।’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে দু’দেশের সঙ্গে আমি আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি। তারা চাইলে আমি তাদের সহযোগিতা করতে পারি। 

গত ৫ আগস্ট তড়িঘরি করে রাষ্ট্রপতির এক স্বাক্ষরের মাধ্যমে ভারতের সংবিধানের ৩৭০ ধারা ও ৩৫ (ক) এর অনুচ্ছেদে দেয়া কাশ্মীরিদের বিশেষ মর্যাদা উঠিয়ে দেয় ভারত সরকার। জোটের একাংশ ও বিরোধীদলের সমালোচনার মুখে বিলটি পাস করে ক্ষমতাসীন বিজেপি তথা মোদি সরকার। 

এর ফলে কাশ্মীরিদের দীর্ঘ ৭০ বছরের স্বায়ত্বশাসনের দাবিকে অগ্রাহ্য করে ভারতের অঙ্গরাজ্যে পরিণত করা হয় ভূস্বর্গখ্যাত এ ভূখণ্ডকে। ভারতের এমন পদক্ষেপে নতুন করে পাক-ভারত যুদ্ধের উপক্রম তৈরি হয়। পাকিস্তান নয়াদিল্লির সঙ্গে সবধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক হ্রাস করে এবং সমস্ত দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য স্থগিতের ঘোষণা দেয়। ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে পাকিস্তান ছেড়ে যেতে বলা হয়েছিল এবং ভারতের সাথে ট্রেন ও বাস পরিষেবাও স্থগিত করা হয়েছিল। 

কাশ্মীরিদের অধিকার ক্ষুন্ন হওয়ার পর ট্রাম্প উভয় দেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একাধিকবার কথা বলেন। শুরু থেকেই কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা হ্রাস করার আহ্বান জানিয়ে আসছেন তিনি। কিন্তু তাতে কোনো কাজে ফাঁয়দা হয়নি। 

ফলে, কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে ফের সহযোগীতার আশ্বাস দিয়েছেন মার্কিন এ প্রেসিডেন্ট। তবে তা নির্ভর করছে উভয় দেশের আন্তরিকতার উপর। 

সূত্র: দ্য ডন 

আই/

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি