ঢাকা, রবিবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৩ ১৪২৭

কুলাউড়ায় করোনা সন্দেহে এক নারীকে সিলেট প্রেরণ

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২২:০১, ১১ এপ্রিল ২০২০

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার সীমান্তবর্তী শরীফপুর ইউনিয়নের বেরী এলাকার করোনা সন্দেহে এক নারীকে (৫০) সিলেট শহীদ সামছু উদ্দিন হাসপাতালের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মৌলভীবাজার সিভিল সার্জন ডা: তাওহীদ আহমদ চৌধুরী। 

অপরদিকে একই ইউনিয়নের চাতলাপুর চা বাগানের চৌচল্লিশ পাট্টা এলাকার এক যুবকের জ্বর শর্দি থাকায় তাকে তার বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টানে থাকতে বলা হয়েছে এবং আগামীকাল স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে তার নমুনা সংগ্রহ করা হবে বলে জানান, কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরহাদ আলম চৌধুরী।

শনিবার (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় করোনা সন্দেহভাজন মহিলার বাড়িতে লাল পতাকা লাগিয়ে লকডাউন করা হয়েছে। শরীফপুর ইউনিয়ন বেরী এলাকার ওই নারী একজন গৃহবধূ। তার জ্বর ও শ্বাস কষ্ট দেখা দিলে তাকে মৌলভীবাজারের একটি ক্লিনিকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে সেখান থেকে খবর পেয়ে মৌলভীবাজার স্বাস্থ্য বিভাগ তাকে সিলেটে করোনা রোগীদের জন্য নিধারিত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন সামছুদ্দিন হাসপাতালে প্রেরণ করে ।

শরীফপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জুনাব আলী বলেন, ঘটনাটি জেনে নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশ দিলে বেরী এলাকার মোহাম্মদ আলীর স্ত্রীকে  সিলেটে পাঠানো হয় এবং এ বাড়িতে লাল পতাকা লাগিয়ে লক ডাউন করা হয়। একই সাথে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের আপাতত হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।  ইউপি চেয়ারম্যান আরও বলেন, চাতলাপুর চা বাগানের চৌচল্লিশ পাট্টার যুবকটি শ্রীমঙ্গল থেকে এসে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। তার উপসর্গ অনেকটা করোনার মতো তাই তার বাড়িটি লকডাউন করা হয়েছে।

কুলাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফরহাদ আলম চৌধুরী বলেন নমুনা পরীক্ষা করে রিপোর্ট পাওয়ার পূর্ব পর্যন্ত, শরীফপুরে একজনের বাড়ি ও অপর একজনকে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। 

আরকে/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি