ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২০:২১:৫০

Ekushey Television Ltd.
উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতন

চীনের ওপর নিষেধাজ্ঞার কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৬:৩৯ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার | আপডেট: ০৬:৪১ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বুধবার

চীনে উইঘুর মুসলিমদের ওপর দেশটির সরকারের দমন-পীড়ন ও নির্যাতনের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। শুধু তাই নয়, উইঘুর ইস্যুতে নতুন করে চীনের উপর অবরোধ আরোপেরও কথা ভাবছে দেশটি।

ইসলামিক সশস্ত্র যোদ্ধা ও বিচ্ছিন্নতাবাদীরা জিনজিয়াং প্রদেশে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে, এমন অভিযোগে ধরপাকড় শুরু করে চীনা সরকার। সাম্প্রতিক অস্থিরতায় সেখানে শত শত মানুষ নিহত হয়েছে। তবে সম্প্রতি জাতিসংঘের একটি মানবাধিকার গ্রুপ দাবি করে, চীনে ১০ লাখ উইঘুর মুসলিমকে কাউন্টার-এক্সট্রিমিজম সেন্টারগুলোতে আটকে রাখার বিশ্বাসযোগ্য তথ্য পেয়েছে তারা। শুধু তাই নয়, ওখানে তাদের উপর অমানষিক নির্যাতন করা হয় বলেও জানায় সংস্থাটি।

মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র হিথার নোয়ার্ট বলেন, ‘চীনের ওই অঞ্চলে শুধু উইঘুর নয়, কাজাখসহ অন্য মুসলিম সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে চালানো ভয়াবহ ধরপাকড় অভিযানের কারণে আমরা উদ্বেগে আছি। নির্ভরযোগ্য খবর থেকে জানা গেছে, ২০১৭ সালের এপ্রিল থেকে হাজারহাজার মানুষকে আটকে রাখা হয়েছে। আমরা এখন পর্যন্ত যা বলতে পারি তাতে এ সংখ্যাটা বেশ উল্লেখযোগ্যসংখ্যক।’

উল্লেখ্য, চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে জনসংখ্যার ৪৫ শতাংশ উইঘুর মুসলিম। এই প্রদেশটি তিব্বতের মত স্বশাসিত একটি অঞ্চল। এদিকে চীনের সঙ্গে এমনিতেই বাণিজ্য যুদ্ধ লেগে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। পাল্টাপাল্টি শুল্কও আরোপ করেছে দেশগুলো। কোরিয়া ইস্যুর পর এবার উইঘুর ইস্যু নিয়েও দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সূত্র: রয়টার্স
এমজে

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি