ঢাকা, মঙ্গলবার   ২০ অক্টোবর ২০২০, || কার্তিক ৫ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

চোর সন্দেহে গাছের সঙ্গে বেধে নির্যাতন, ভিডিও ভাইরাল

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ১৫:০৮ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলায় ছাগল চোর সন্দেহে মধ্যযুগীয় কায়দায় গাছের সঙ্গে বেধে নির্যাতনের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এ ঘটনা সর্ব মহলে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। 

শুক্রবার বিকেলে উপজেলার জামতৈল কলেজপাড়া গ্রামে ঘঠে যাওয়া ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, স্থানীয় মাছের পোনা উৎপাদনকারী ব্যবসায়ী হ্যাপি ছাগল চুরি সন্দেহে একজনকে রশি দিয়ে তার হাত পা বেঁধে তার হাতের নখগুলো পেলাস দিয়ে তুলে ফেলেন। এ সময় কথিত অজ্ঞাত ওই চোর ব্যাপক চিৎকার চেঁচামেচি করতে থাকে। 

ভিডিও’তে নির্যাতনকারী হ্যাপি কথিত ঐ চোরকে মারধরের এক পর্যায়ে বলে, ‘ওর আঙুল দুইটা ভাঙছি ও অন্য চোরদের নাম না বলা পর্যন্ত ওর আঙুল সবগুলো ভাঙবো, তার আগে ছাড়বো না। হ্যাপি নির্যাতিত ওই ব্যক্তিকে বলে, ‘আমি ওকে মেরে ফেলবো না, ওর হাতপা ভাঙবো তারপর ছেড়ে দেব’। 

এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, অজ্ঞাত ওই ব্যক্তিকে ছাগল চোর সন্দেহে গাছের সঙ্গে বেঁধে বেধম মারপিট করে হ্যাপি ও তার ছেলে। বার বার নিষেধ করার পরেও কারো কথা মানেনি তারা। স্থানীয়রা কথিত ওই চোরকে না মেরে পুলিশে সোপর্দ করার কথা বললেও ওই ব্যক্তিকে মারতেই থাকে। নির্যাতনের প্রায় দুই ঘণ্টা পর অজ্ঞাত ওই কথিত চোরকে ছেড়ে দেয় হ্যাপি।

এ ব্যাপারে হ্যাপি জানান, এর আগে আমার একটি ছাগল হারিয়েছে। আবার আরেকটি ছাগল নিয়ে যাওয়ার সময় ছাগল চোরকে ছাগলসহ হাতেনাতে ধরে দু একটা চড় থাপ্পর দিয়ে ছেড়ে দেই। এ ব্যাপারে থানা থেকে পুলিশ এসেছিল। আমি বাড়ীতে না থাকায় মুঠোফোনে থানার লোকদের সাথে কথা হয়েছে।

এ ব্যাপারে কামারখন্দ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। নির্যাতিত ভিকটিম ও নির্যাতনকারী কাউকে পাওয়া যায়নি। তারপরও আমরা বিষয়টি দেখছি কি করা যায়।

এমবি//


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি