ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

জেনে নিন ক্রিকেট কোচদের কার বেতন কত

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১১:৩৮ ১৭ অক্টোবর ২০১৯ | আপডেট: ১২:১৪ ১৭ অক্টোবর ২০১৯

ব্যাট ও বল হাতে মাঠে খেলে ২২ জন। এই ক্রিকেট খেলোয়াড়দের পেছনের কারিগর হলো কোচ। যার ভূমিকা বিশাল। খেলোয়াড়দের দুর্বলতা খুঁজে বের করে তা সারানো, বিপক্ষ দলকে ধরাসায়ী করার স্ট্র্যাটেজি তৈরি করা সবই তাঁর দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। কাজের ধরন যতই একই রকমের হোক না কেন, বেতনের বেলায় রয়েছে অনেক পার্থক্য। এবার দেখে নেওয়া যাক বেশ কয়েকজন কোচের পারিশ্রমিক সম্পর্কে-

ফ্লয়েড রেইফার: ওয়েস্ট ইন্ডিজের বর্তমান কোচ ফ্লয়েড রেইফার। চলতি বছরের গোড়ায় রিচার্ড পাইবাসের জায়গায় কোচ হন। বছরে প্রায় ৮০ লাখ টাকা পাচ্ছেন তিনি।

ওটিস গিবসন: এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সুনামের সঙ্গে কোচিং করিয়েছেন ওটিস গিবসন। কিছুদিন আগেও দক্ষিণ আফ্রিকার কোচ ছিলেন গিবসন। বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পরিপ্রেক্ষিতে ছেঁটে ফেলা হয় তাঁকে। শোনা যায় তাঁর সঙ্গে প্রায় সোয়া কোটি টাকার বাৎসরিক চুক্তি ছিল।

রাসেল ডোমিনগো: বাংলাদেশের কোচ এখন রাসেল ডোমিনগো। চার বছর দক্ষিণ আফ্রিকাকে কোচিং করিয়েছিলেন তিনি। শোনা যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে বাৎসরিক দেড় কোটি টাকার চুক্তি করেছেন ডোমিনগো।

গ্যারি স্টিড: নিউজিল্যান্ডের কোচ গ্যারি স্টিড। তাঁর কোচিংয়ে কিউয়িরা তিন ফরম্যাটেই সাফল্য পাচ্ছেন। বিশ্বকাপের ফাইনালেও উঠেছিল নিউজিল্যান্ড। যা খবর, তাতে বাৎসরিক ২ কোটি টাকার কিছু কম তিনি পান।

মিসবাহ-উল হক: মিকি আর্থারের পর পাকিস্তানের কোচ হয়েছেন মিসবাহ-উল হক। তিনি শুধু প্রধান কোচই নন, জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচকও। তবে কোচ ও নির্বাচক, দুই দায়িত্ব পালন করতে হলেও বাড়তি অর্থ পাচ্ছেন না বলেই পাক বোর্ডের সূত্রের খবর। শোনা যাচ্ছে, তাঁর সঙ্গে বাৎসরিক সোয়া ২ কোটি টাকার চুক্তি করেছে পিসিবি।

হাথুরাসিংহে: ২০১৪ সালে বাংলাদেশের কোচ হন হাথুরাসিংহে। ২০১৭ সালে হন শ্রীলঙ্কার কোচ। সেই সময়ে তাঁর সঙ্গে বছরে প্রায় চার কোটি টাকার চুক্তি হয়েছিল বলে জানা যায়।

ট্রেভর বেইলিস: তিনি ২০১৫ সালে ইংল্যান্ডের কোচ হন। তাঁর কোচিংয়ে সদ্য বিশ্বকাপ জিতেছে ইংল্যান্ড। অ্যাশেজ পর্যন্ত চুক্তি ছিল তাঁর। শোনা যাচ্ছে, চুক্তি অনুসারে বছরে প্রায় সাড়ে ৪ কোটি টাকা পেতেন তিনি।

জাস্টিন ল্যাঙ্গার: তিনি ২০১৮ সালের মে মাসে অস্ট্রেলিয়া দলের কোচিংয়ের দায়িত্ব নেন। এই মুহূর্তে বোর্ডের খবর অনুযায়ী বছরে প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকার চুক্তি তাঁর।

রবি শাস্ত্রী: ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড আর্থিকভাবে সবচেয়ে স্বচ্ছল। ফলে, টিম ইন্ডিয়ার প্রধান কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রী যে ক্রিকেট দুনিয়ায় সবচেয়ে বেশি অর্থ পাবেন তাতে বিস্ময়ের কিছু নয়। ৫৭ বছর বয়সি রবি বছরে সোয়া ১১ কোটি টাকা পান বলে জানা যায়।

এএইচ/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি