ঢাকা, সোমবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১২:৩৯:০৬

সবচেয়ে বেশি সম্পদ মাশরাফির

সবচেয়ে বেশি সম্পদ মাশরাফির

এবারের নির্বাচনে ক্রীড়া ও সংস্কৃতি অঙ্গনের জনপ্রিয় বেশ কয়েকজন তারকা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এদের মধ্যে চলচ্চিত্র অভিনেতা আকবর পাঠান ফারুক, চলচ্চিত্রকার মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা ও সঙ্গীতশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনক চাঁপা। তারা বিভিন্ন দল থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন। তবে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যেসব তারকা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন তাদের মধ্যে সম্পদের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার।নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন মাশরাফি। হলফনামা অনুযায়ী, তার বার্ষিক আয় দুই কোটি চার লাখ ৬৪ হাজার ৭০০ টাকা এবং বার্ষিক ব্যয় ৩৫ লাখ ৮০ হাজার ৫০০ টাকা।সিরাজগঞ্জ-১ আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন কনক চাঁপা। তার হলফনামায় সঞ্চয়পত্র, শেয়ার ও ব্যাংক হিসাব থেকে বার্ষিক তিন লাখ ৩১ হাজার ২০০ টাকা, পেশা থেকে ছয় লাখ ৩৫ হাজার টাকা এবং অন্য সব খাত থেকে আয় চার লাখ ৭১ হাজার ৯৭৩ টাকা আয় দেখানো হয়েছে।ঢাকা-১৭ আসনে আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন চিত্রনায়ক ফারুক। অভিনয় বাদে আর কোনো আয়ের উৎসের কথা তিনি হলফনামায় উল্লেখ করেননি। তবে স্থায়ী সম্পদের হিসাবে গাজীপুরের কালীগঞ্জে তার ৬০ বিঘা কৃষি জমি রয়েছে, যার মূল্য উল্লেখ করা হয়েছে দুই লাখ ৫০ হাজার টাকা। বরিশাল-২ আসনে জাতীয় পার্টির টিকিটে সোহেল রানা নির্বাচন করবেন। তার হলফনামায় ব্যবসা থেকে বার্ষিক আয় ১১ লাখ ২৯ হাজার ৯৭ টাকা দেখানো হয়েছে। এসএ/  
ইতিহাস গড়লেন মেসি

লিওনেল মেসি। বর্তমান ফুটবল বিশ্বের অন্যতম সেরা তারকা। যিনি বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। একের পর এক রেকর্ড নিজের নামে করে চলেছেন তিনি। এবার কাতালান ডার্বিতে এসপানিওলের বিপক্ষে জোড়া গোল করে লা লিগার ইতিহাসে নতুন এক কীর্তি যোগ করলেন ফুটবলের জাদুকর।শনিবার এসপানিওলের বিপক্ষে ফ্রি-কিক থেকে জোড়া গোল করেছেন মেসি। প্রথমার্ধে করা নিজের প্রথম গোলটি করেই লা লিগায় গোলের দুই অংকে পৌঁছার পাশাপাশি লা লিগায় একটা রেকর্ডও গড়া হয়ে গেছে তার। লা লিগায় টানা ১৩ মৌসুমে ১০ বা তার অধিক গোল করা একমাত্র খেলোয়াড় এখন এই তারকা।এছাড়া এই ম্যাচে নিজের প্রথম গোলের মতো দ্বিতীয় গোলটিও ফ্রি-কিক থেকে করেছেন, যা মেসির ক্যারিয়ারে প্রথম। চলতি বছরে ফ্রি-কিক থেকে মেসির গোল হলো ১০টি! এটাও একটা রেকর্ড।মেসির জোড়া গোল আর লুইস সুয়ারেস ও উসমান দেম্বেলের গোলে ৪-০ ব্যবধানে জয়ে পায় লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।এসএ/

এত সহজে তো ফোকাস সরার কথা না: মাশরাফি

রাজনীতির প্রভাব খেলাতে পড়তে দেননি ওয়ানডে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার। নানা আলোচনা সমালোচনা সংশয় দূর করে উইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে বল হাতে নিয়েই। ৩ উইকেট ঝুলিতে ভরে নড়াইল এক্সপ্রেস হয়েছেন ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়। মাশরাফীর সামনে থেকে দেয়া অসাধারণ নেতৃত্বে ৫ উইকেটের দাপুটে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। রাজনীতিতে সরাসরি সম্পৃক্ত হওয়ার পর প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেললেন টাইগার অধিনায়ক। পারফরম্যান্সেই দিয়ে দিলেন গত কয়েকদিনে ওঠা অনেক প্রশ্নের জবাব। মাশরাফী অবশ্য এটিকে ‘জবাব’হিসেবে দেখতে চান না। দেড়যুগ ধরে ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতা মাঠের বাইরের ব্যস্ততায় হাওয়া হয়ে যাওয়ার কথা নয়; সেটিই বোঝাতে চাইলেন ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে। ‘জবাব দেয়ার কি আছে? জবাব দেয়ার কিছু নেই। খারাপ পারফর‌ম্যান্স হলে বলতো (খেলায় প্রভাব পড়েছে), এটাই স্বাভাবিক। আসলে জবাব দেয়ার কিছু নেই। ১৮ বছর ধরে খেলছি, সহজে ফোকাস সরার তো কথা না। প্রত্যেকটা মানুষ নিজেকে খুব ভালো করে চেনে। সবাই চেনে কিনা জানি না, আমি আমাকে চিনি। এত সহজে তো ফোকাস সরার কথা না। বিশেষ করে গেল কিছুদিন ধরে এ নিয়েই চেষ্টা করে যাচ্ছি, বলটা যেখানে করতে চাই পারছি কিনা; এটা নিয়ে ফোকাস করে যাচ্ছিলাম, জবাব দেয়ার কিছু নেই।’ জিম্বাবুয়ে সিরিজে পুরোপুরি ফিট ছিলেন না মাশরাফী। বোলিংয়ে স্পষ্ট হয়েছিল তার প্রভাব। ঊরু ও কুঁচকির চোট নিয়েই খেলে গেছেন। এখনও পুরোপুরি ফিট হতে পারেননি সেটি স্বীকার করলেন অকপটে। সেইসঙ্গে দিলেন একটি দুঃসংবাদও, ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বিকেএসপিতে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছি। আজ ফিটনেস টেস্ট হওয়ার কথা ছিল, আমি চেয়েছি খেলতে।’ ফিটনেস টেস্টে নেতিবাচক কিছু এলে হয়ত খেলাই হত না মাশরাফীর। কিন্তু বোলিং দেখে কে বলবে শারীরিকভাবে এখনও নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন রোববারই ২০০তম ওয়ানডে খেলা এ মহাতারকা! টিআর/

তামিম যেন উড়ন্ত পাখি

দীর্ঘদিন ইনজুরি থেকে ফিরেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিপক্ষে মাঠে মেনেই চমক দেখালেন তামিন। দুর্দান্ত ক্যাচে আউট করেছেন ভয়ংকর হয়ে ওঠা ড্যারেন ব্রাভোকে। প্রথম ওয়ানডেতে টসে জিতে মাঠে নামে ইন্ডিজ। তবে ব্যাটিং বেছে নিলেও সুবিধা করতে পারেনি ক্যারিবীয়রা। ৫০ ওভার লড়াই করে তারা সংগ্রহ করে ১৯৫রান। ১৬তম ওভারে মুস্তাফিজুর রহমানের বলে প্রথমবারের মতো জীবন পেয়েছিলেন ব্রাভো। ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে আরিফুল ইসলামের হাত ফসকে ক্যাচ বেরিয়ে গিয়েছিল। ২০তম ওভারে রুবেল হোসেনের বলে আবারও জীবন পেয়েছেন এই ব্যাটসম্যান। স্টাম্পের বাইরের বলকে খোঁচা দিয়ে ফেলেছিলেন তিনি। তবে বাঁ পাশে ঝাঁপিয়ে পড়েও বলটি ধরে রাখতে পারেননি উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিম। ঠিক সে মুহূর্তে দলের হতাশা কাটিয়ে দলকে উজ্জীবিত করেছেন ইনজুরি থেকে ফেরা তামিম। ২১তম ওভারেই মাশরাফির অফস্টাম্পের বাইরের একটি বলকে লংঅফের দিকে উড়িয়ে মেরেছিলেন ব্রাভো। ডানদিকে ছুটে গিয়ে বাতাসে লাফিয়ে দুহাতে সেই ক্যাচ নিরাপদে নিয়েছেন তামিম। ইনজুরি থেকে ফিরেই এমন অসাধারণ ক্যাচে স্বস্তি ফিরে এসেছিল বাংলাদেশ দলে। মূল ম্যাচে ফিল্ডিংয়ে নিজেকে প্রমাণ করেছেন তামিম। ব্যাট হাতে আজ তিনি জ্বলে উঠবেন কি না, সেটি সময়ই বলে দেবে টিআর/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি