ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ৪:১৬:৪২

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় টাইগারদের

শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় টাইগারদের

চলতি এশিয়া কাপের ‘সুপার ফোর’ পর্বে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে আফগানিস্তানকে ৩ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। ফলে এবারের এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলার সম্ভাবনা এখনও টিকে থাকলো টাইগারদের। তবে নিশ্চিত হয়েছে আসর থেকে আফগানিস্তানের বিদায়। 
বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবলের বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা শুরু

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (অনূর্ধ্ব-১৭) আজ রোববার থেকে শুরু হয়েছে বিভাগীয় পর্যায়ের খেলা। বরিশাল বিভাগে আন্তঃজেলার খেলার উদ্বোধন করেন বিভাগীয় কমিশনার রাম চন্দ্র দাস। উদ্বোধণী ম্যাচে বরগুনা জেলার বিপক্ষে জয় পেয়েছে পিরোজপুর জেলা। এছাড়া ভোলাকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ঝালকাঠি জেলা। পটুয়াখালী জেলাকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে বরিশাল জেলা। এদিকে আজ অনুষ্ঠিত হয়েছে আট জেলার ফাইনাল। এতে নোয়াখালী জেলায় সদর উপজেলা, রংপুর জেলায় সিটি  করপোরেশন, নরসিংদী জেলায় সদর উপজেলা, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ায় সরাইল এবং কুমিল্লায় সিটি করপোরেশন  চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এছাড়া এদিন বগুড়া, নাটোর এবং নড়াইল জেলার ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া চাপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সেমিফাইনালে সদর পৌরসভা ৫-০ গোলে শিবগঞ্জকে হারিয়েছে। আর সদর উপজেলা ৬-৫ গোলে হারায় গোমস্তাপুরকে । কেআই/ এসএইচ/

বাংলাদেশকে ব্রেক থ্রো এনে দিলেন মোস্তাফিজ

সুপার ফোরে ঠিকে থাকতে আফগানিস্তানকে হারানো ছাড়া জয়ভিন্ন কিছু ভাবছে না টাইগাররা। আর জয়ের জন্য প্রয়োজন আফগানিস্তানের ১০টি উইকেট। এরইলক্ষ্যে প্রথম আঘাত হেনেছেন কাটার বয় মুস্তাফিজুর রহমান। খেলার পঞ্চম ওভারে আফগান ব্যাটসম্যান ইহসানুল্লাহকে ফিরিয়ে দলকে ব্রেক থ্রো এনে দেন মুস্তাফিজুর রহমান। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাংলাদেশের আফগানিস্তানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ ওভারে ২৪ রান। হাতে রয়েছে আরও ৯ উইকেট। এর আগে ব্যাটস করতে নেমে মাহমুদুল্লাহ ও ইমরুল কায়েসের জোড়া হাফ সেঞ্চুরিতে আফগানদের ২৫০ রানের টার্গেট দেয় বাংলাদেশ।এশিয়া কাপে টিকে থাকতে হলে বাংলাদেশকে আজ জিততেই হবে, এমন সমীকরণে কাবুলিদের বধে মাঠে নেমেছে টাইগাররা। অন্যদিকে বাংলাদেশকে হারিয়ে আফগানিস্তানও চায় টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে। এমজে/

ভারতকে ২৩৮ রানের টার্গেট দিল পাকিস্তান

এশিয়া কাপের সুপার ফোরে শক্তিশালী পাকিস্তানকে ২৩৭ রানের টার্গেট দিল পাকিস্তান। অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান শোয়েব মালিকের ৭৮ ও সরফরাজ আহমেদের ৪৪ রানের উপর ভর করে এই ২৩৭ রান তোলে পাকিস্তান। শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও মালিক ও সরফরাজে এই তুলতে সক্ষম হয় পাকিস্তান। এর আগে ভারতের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন পাকিস্তানের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান শোয়েব মালিক। সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরির সুবাদে পাকিস্তানকে জয় এনে দেন পাক এই ব্যাটসম্যান। আজকের ম্যাচেও প্রাথমিক বিপর্যয় সামলানোর চেষ্টা করেছেন অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান।এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান। ইনিংসের শুরুতেই ফিরে যান ওপেনিং ব্যাটসম্যান ইমামুল হক। দলীয় ২৪ রানে ইমামুলের বিদায়ের পর হাল ধরেন ফখর জামান। তবে তিনিও বেশিদূর এগোতে পারেনি। তার সংগ্রহ ৩১ রান। এর আগে বাবর আজম ব্যক্তিগত ৯ রানে আউট হলে বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান। তবে প্রাথমিক সে বিপর্যয় সামলে দলকে এগিয়ে নিয়েছেন শোয়েব মালিক ও সরফরাজ আহমেদ। পাকিস্তানের পক্ষে ইমামুল ১০, ফখর জামান ৩৪, বাবর আজম ৯, আসিফ আলী ৩০, শাদব খান ১০, নওয়াজ ১৫ ও হাসান আলী ২ রান নেন।ভারতের পক্ষে বুমরাহ, চাহাল ও যাদব প্রত্যেকেই দুইটি করে উইকেট তুলে নিয়েছেন। তবে রবীন্দ্র জাদেজা কোনো উইকেট তুলতে পারেনি। এমজে/

মাহমুদুল্লাহর পর ইমরুলের হাফ সেঞ্চুরি

জায়গা হয়নি এশিয়া কাপের প্রথম চূড়ান্ত তালিকায়। তাই নবাগত শান্ত, মিঠুনরা দুবাইয়ে পাড়ি জমালেও দেশে বসেই সতীর্থদের অসহায় আত্মসমর্পণ অবলোকন করছিলেন ইমরুল। তবে শেষ পর্যন্ত বিসিবির শুভ বুদ্ধি উদয় হলো। এতেই সুপার ফোরের শেষ দুই ম্যাচের জন্য দেশ থেকে উড়িয়ে নেওয়া হলো ইমরুল কায়েস ও সৌম্য সরকারকে। তবে সৌম্যর দলে জায়গা না হলেও, সুযোগ পেয়ে ভালোই জবাব দিচ্ছেন ইমরুল কায়েস। সতীর্থ ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর নিজেও তুলে নিলেন হাফ সেঞ্চুরি।সাকিব-মুশফিককে হারিয়ে বাংলাদেশ যখন খাদের কিনারায় তখনই ব্যাটিংয়ে নামে মাহমুদুল্লাহ ও ইমরুল কায়েস। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এ জুটির সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১০৫ রান। ১৩২ বল মোকাবেলা করে এ রান করেছেন তারা। এদিকে মাহমুদুল্লাহ ৭৮ বল খেলে ৭৩ রানে অপরাজিত আছেন। অন্যদিকে ইমরুল কায়েস আছেন ৫০ রানে। হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিতে কায়েস খেলেছেন ৭৮ বল।এর আগে টস জিতে  ব্যাটিংয়ে নামার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। দলীয় ১৬ রানেই ব্যক্তিগত ছয় রানি করে বিদায় নেন শান্ত। এর দুই রান পরই বিদায় নেন মোহাম্মদ মিঠুন। এদিন লিটন কিছুটা চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত ৪১ রানে বিদায় প্রথম তিন ম্যাচে ফ্লপ এই ব্যাটসম্যান। সে চাপ আর সামলে উঠতে পারেনি মুশফিক-সাকিবরা।এমজে/

মাহমুদুল্লাহ-কায়েসে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশ

মাহমুদুল্লাহ ও ইমরুল কায়েসে ব্যাটিং ব্যর্থতার বৃত্ত থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা। এশিয়া কাপের প্রতিটি ম্যাচের মতো আজকের ম্যাচেও সুপার ফ্লপ বাংলাদেশের টপ অর্ডার। নাজমুল হোসেন শান্ত ৬ রান করে ফিরলেও, মোহাম্মদ মিঠুন ফিরেন মাত্র এক রানে। এরপরই সাকিব ফিরেন রানের খাতায় কোনো রান যোগ না করেই।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত টাইগারদের সংগ্রহ ৪০ ওভারে ১৭২ রান। হাতে আছে আরও ৬ উইকেট। এদিকে মাহমুদুল্লাহ  রান ও ইমরুল কায়েস ৩৯ রানে ক্রিজে রয়েছেন। আফগানিস্তানের পক্ষে আফতাব আলম, রশিদ খান ও মুজিবুর রহমান প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট লাভ করেন।এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশি অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। দলীয় ১৬ রানেই ব্যক্তিগত ছয় রানি করে বিদায় নেন শান্ত। এর দুই রান পরই বিদায় নেন মোহাম্মদ মিঠুন। এদিন লিটন কিছুটা চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ব্যক্তিগত ৪১ রানে বিদায় প্রথম তিন ম্যাচে ফ্লপ এই ব্যাটসম্যান। সে চাপ আর সামলে উঠতে পারেনি মুশফিক-সাকিবরা।এজন্যই তাড়াহুড়ো করে রান নিতে গিয়ে বিদায় নেন সাকিব। শেনওয়ারির ডাইরেক্ট হিট আনেন উইকেটে। এতেই বিদায় নেন সাকিব। এর ঠিক এক ওভার পরেই একই কায়দায় বিদায় নেন মুশফিক। সাকিব কোনো রান না করতে পারলেও শেষ পর্যন্ত মুশফিকের সংগ্রহ ৩৩ রান।এমজে/

শোয়েব মালিকের হাফ সেঞ্চুরিতে এগিয়ে পাকিস্তান

এশিয়া কাপের সুপার ফোরে ভারতের বিপক্ষে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন পাকিস্তানের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান শোয়েব মালিক। সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরির সুবাদে পাকিস্তানকে জয় এনে দেন পাক এই ব্যাটসম্যান। আজকের ম্যাচেও প্রাথমিক বিপর্যয় সামলানোর চেষ্টা করছেন অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান। এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান। ইনিংসের শুরুতেই ফিরে যান ওপেনিং ব্যাটসম্যান ইমামুল হক। দলীয় ২৪ রানে ইমামুলের বিদায়ের পর হাল ধরেন ফখর জামান। তবে তিনিও বেশিদূর এগোতে পারেনি। তার সংগ্রহ ৩১ রান। এর আগে বাবর আজম ব্যক্তিগত ৯ রানে আউট হলে বিপর্যয়ে পড়ে পাকিস্তান। তবে প্রাথমিক সে বিপর্যয় সামলে দলকে এগিয়ে নিচ্ছেন শোয়েব মালিক ও সরফরাজ আহমেদ। শোয়েব মালিক ব্যক্তিগত ৬০ রান ও সরফরাজ আহমেদ ব্যক্তিগত ৩৯ রানে অপরাজিত আছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত পাকিস্তানের সংগ্রহ ১৫৯ রান। হাতে আছে ৭ উইকেট এবং ৭২ বল। এমজে/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি