ঢাকা, শনিবার   ১০ এপ্রিল ২০২১, || চৈত্র ২৭ ১৪২৭

মাশরাফিকে পেতে মরিয়া রাজশাহী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:২৬, ৫ ডিসেম্বর ২০২০

খুনসুটিতে মশগুল দুই বন্ধু

খুনসুটিতে মশগুল দুই বন্ধু

দীর্ঘদিন ছিলেন মাঠের বাইরে, তার উপর ছিল ছোটখাটো চোট-সমস্যা। চলমান বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের প্লেয়ার্স ড্রাফটে ছিলেন না সে কারণেই। তবে টুর্নামেন্টের মাঝপথে সেই মাশরাফি বিন মুর্তজাকে নিয়েই রীতিমত কাড়াকাড়ি দলগুলোর মধ্যে। শুরুতে আগ্রহী না থাকলেও এবার মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীও পেতে চাইছে ম্যাশকে। 

তবে মাশরাফি শেষপর্যন্ত কোন দলে যোগ দেবেন তা হয়তঅ নির্ধারণ করা হবে লটারির মাধ্যমে। যদিও এই লিজেন্ডকে পেতে নিজেদের চাহিদার কথা জানিয়ে ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিবি) চিঠি দিয়েছে রাজশাহী।

মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর টিম ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন সাবেক ক্রিকেটার হান্নান সরকার। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের দলের অবস্থা তো দেখছেনই। ভালো শুরুর পর একটা ধাক্কা খেয়েছি। গত তিনটা ম্যাচ শেষে আমরা এখন ব্যাকফুটে আছি। মাশরাফি যখন খেলবে তখন যে কোনও দলের জন্যই একটা বিশাল সুযোগ থাকবে।’ 

এদিকে, চোটের কারণে রাজশাহীর হয়ে এখনও মাঠেই নামা হয়নি পেস বোলিং অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের। তবে পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শেষে তিনি শীঘ্রই মাঠে ফিরবেন বলে জানা গেছে। 

সাইফউদ্দিনের সঙ্গে মাশরাফিকেও পাওয়া গেলে বোলিং ইউনিট শক্তিশালী হবে। এমনটাই প্রত্যাশা হান্নানের। তিনি বলেন, ‘বড় একটা ধাক্কা খাওয়ার পর সাইফউদ্দিনকে আশা করি পেতে যাচ্ছি। এখন সঙ্গে যদি মাশরাফিও থাকে তাহলে দলের শক্তি অনেক বেড়ে যাবে। বোলিংয়ে সাম্প্রতিক ম্যাচগুলোয় কিছুটা সংগ্রাম করছি আমরা। সাইফউদ্দিন ও মাশরাফি দুজনকে একসঙ্গে খেলাতে পারলে আমাদের জন্য বিশাল একটা পাওয়া হবে।’

তবে চাইলেই কিন্তু মাশরাফিকে দলে ভেড়াতে পারছে না রাজশাহী। তাকে পেতে হলে লাগবে বোর্ডের অনুমোদন ও মাশরাফির সিদ্ধান্ত। এ বিষয়ে হান্নান জানান, ‘একটা বড় বিষয় হচ্ছে- মাশরাফি কী চাচ্ছে, সেটা জানা। সে এমন একজন খেলোয়াড় বা অধিনায়ক, যার সঙ্গে আলোচনা না করে আমরা কোনও সিদ্ধান্তে পৌঁছতে পারব না। এখানে মাশরাফির মতামতই প্রাধান্য পাবে।’ 

মাশরাফি দলে আসলে তাকে অধিনায়কত্বের প্রস্তাবও দেওয়া হবে বলে জানান হান্নান সরকার। সাবেক এই ওপেনার বলেন, ‘এখনও বোর্ড থেকে নির্দিষ্ট কোনও নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। আমরা তাকে দলে পেতে প্রক্রিয়া শুরু করেছি, বোর্ডে আবেদনও করেছি। বাকিটা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বোর্ডের মাধ্যমে জানতে পারবো।’ 

তবে মাশরাফিকে দ্রুতই পেতে মরিয়া হান্নান সরকার আরও বলেন, ’আগামীকাল (৬ ডিসেম্বর) আমাদের ৬ নম্বর ম্যাচ। এরপরে আরও দুইটা ম্যাচ আছে রাউন্ড লিগের। ৮ তারিখে যেহেতু ৭ নম্বর ম্যাচ হবে, সেক্ষেত্রে কালকের মধ্যে একটা সিদ্ধান্ত পেলে ভালো হয়। গ্রুপ পর্বে দুইটা ম্যাচ খেললে আমাদের দলের জন্য প্লে-অফে খেলা সুবিধাজনক হবে। আমরা মনেপ্রাণে চাচ্ছি- মাশরাফিকে যেন ৮ তারিখের ম্যাচে পাই।’

এদিকে, মাশরাফিকে পেতে চায় বরিশালও। খুলনাও নাকি তাকে পেতে আবেদন জানিয়ে রেখেছে। এখন দেখার পালা মাশরাফির জন্য কার ভাগ্যের শিকে কতটা মজবুত।

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি