ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ৩:৩০:০০

Ekushey Television Ltd.

নওয়াজ-মরিয়মের বক্তব্য প্রকাশ না করতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৫:২০ পিএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার | আপডেট: ০৬:৫০ পিএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৮ সোমবার

পাকিস্তান মুসলীম লীগের সাবেক প্রধান নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজসহ নেতাদের আদালত বিরোধী বক্তব্য দেওয়ায় তাদের বক্তব্য আগামী ১৫ দিন পর্যন্ত প্রকাশ না করার জন্য গণমাধ্যমকে আদেশ দিয়েছে দেশটির একটি আদালত।

লাহোরের একটি আদালত আজ সোমবার এই আদেশ দেন। বিচারক সৈয়দ মাজহার আলী আকবার নাকভী, আতির মুহাম্মদ ও চৌধুরী মাসুদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে একটি বেঞ্চ আদেশে বলেন, এখন থেকে দেশটির কোনো গণমাধ্যমে নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজসহ দলটির নেতাদের আদালত বিরোধী বক্তব্য প্রকাশ করা যাবে না।

এদিকে পাকিস্তানের ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি কর্তৃপক্ষকে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কোন বক্তব্যগুলো আদালত অবমাননাকর বা আদালতের বিরুদ্ধে যায়, তা পরীক্ষা করার জন্যও আদেশ দেন। ইলেকট্রনিক গণমাধ্যম কর্তৃপক্ষ যতক্ষণ পর্যন্ত আদালতের অভিযোগগুলোর ব্যাপারে সিদ্ধান্তে আসতে পারবে না, ততক্ষণ পর্যন্ত নওয়াজ শরীফ ও তার মেয়েসহ দলটির নেতাদের বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশ না করার তাগিদ দেওয়া হয়েছে।

এর আগে আদালত নওয়াজ শরীফের একটি আবেদন খারিজ করে দেন। বিচারক আকবার নাকভীকে বেঞ্চ থেকে অপসারণের জন্য তিনি আবেদনটি করেছিলেন। পানামা পেপার কেলেঙ্কারির ঘটনায় আদালত নওয়াজ শরীফকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী পদের অযোগ্য ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে তাকে কোনো রাজনৈতিক দলের প্রধান হিসেবেও অযোগ্য ঘোষণা করে আদালত। এরপর থেকেই আদালতের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন নওয়াজ শরীফ ও তার কন্যা মরিয়ম নওয়াজ। সমালোচনা করতে থাকেন আদালতের।

দেশটির বিভিন্ন আদালতে নওয়াজ শরীফ ও তার কন্যার বক্তব্যের জেরে আদালত অবমাননার অভিযোগে বেশ কিছু মামলা হয়। এই পিটিশনগুলোর আওতায় দেশটির বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসী ও দেশটির কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক কয়েকজন মন্ত্রীকেও অভিযুক্ত করা হয়েছে। গত জানুয়ারিতেই ইসলামাবাদের একটি আদালত নওয়াজ শরীফ ও মরিয়ম নওয়াজের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগে করা একটি মামলা আমলে নিয়েছেন।

সূত্র: দ্য ডন
এমজে/

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি