ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৬ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

নাগরিকত্ব আইন ১০০০% সঠিক: মোদি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:২২ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

ভারতে নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ক্রমবর্ধমান অশান্তি ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় কংগ্রেসসহ বিরোধীদের হাত রয়েছে বলে দাবি করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খবর এনডিটিভি’র।

রোববার তিনি কংগ্রেস এবং তার সহযোগীদের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলে বলেন, নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় দেশে যে অশান্তির আগুন তাতে ঘি ঢালছে বিরোধী দলগুলোই।

মোদি বলেন, কংগ্রেস এবং তার সহযোগীরা নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে দেশে আগুন জ্বালিয়ে দিচ্ছে, কিন্তু উত্তর-পূর্বের মানুষ হিংসা প্রত্যাখ্যান করেছে। কংগ্রেসের পদক্ষেপই প্রমাণ করে যে সংসদে গৃহীত সমস্ত সিদ্ধান্তই সঠিক।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশ সব দেখছে। সংসদে বিল পাস হওয়ার পরে মোদির প্রতি জনগণের বিশ্বাস দৃঢ় হয়েছে। বিরোধীদের কর্মকাণ্ডগুলোই বুঝিয়ে দিচ্ছে যে সংসদে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল পাসের সিদ্ধান্তটি এক হাজার শতাংশ সঠিক।

কোনও নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের কথা উল্লেখ না করে মোদি জানান, কারা আগুনে ঘি ঢালছে তা তাদের পোশাক দিয়েই চেনা যাচ্ছে। মোদির কথায়, যে ব্যক্তিরা আগুন লাগাচ্ছেন তাদের টিভিতেই দেখা যাচ্ছে... তারা যে পোশাক পরেছেন তা দিয়েই তাদের চিহ্নিত করা যায়।

মোদির দাবি যে সংশোধিত আইনকে কেন্দ্র করে উত্তর-পূর্ব এবং পশ্চিমবঙ্গে যে সহিংস প্রতিবাদ শুরু হয়েছে তার পিছনে বিরোধীদের সমর্থন রয়েছে। বিদেশেও কংগ্রেসের এই আইনের বিরোধিতায় বিক্ষোভের নিন্দা করে মোদি বলেন, এই প্রথমবার পাকিস্তানিরা দীর্ঘদিন ধরে যা করে আসছে কংগ্রেস তাই করছে।

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনকে কেন্দ্র করে পুরো উত্তর-পূর্বাঞ্চল এবং পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে বিক্ষোভ চলছে। জনগণের আশঙ্কা যে এই আইন অবৈধ অভিবাসনের সমস্যা আরও বাড়িয়ে তুলতে পারে। দেশজুড়ে মুসলিমরা এই আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন এবং এই পদক্ষেপ যে আসলে নাগরিকদের জন্য জাতীয় নাগরিকপঞ্জির দেশব্যাপী বাস্তবায়নের ঠিক আগের ধাপ এমনই মনে করছেন তারা।

কেন্দ্র ও রাজ্যে বিজেপি সরকারের কৃতিত্বের কথা উল্লেখ করে মোদি বলেন, আমি আপনাদের সেবক। রাজ্যে আমাদের দল যে উন্নয়নমূলক কাজ করেছে আমি তার হিসাব দিতেই এখানে এসেছি।

একে//


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি