ঢাকা, রবিবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৩ ১৪২৭

নাগরিকত্ব বিল ভারতের অবস্থানকে দুর্বল করবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:৩৮, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯

ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব বিল দেশটির ঐতিহাসিক ধর্মনিরপেক্ষ অবস্থানকে দুর্বল করবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। তিনি বলেন, ভারতের এই বিল দেশটিকে দুর্বল করবে। আর বাংলাদেশে সকল ধর্মের লোক শান্তিতে রয়েছেন। কেউই এখানে নিপীড়িত নয়।

আজ বুধবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলারের সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘ভারত ঐতিহাসিকভাবে একটি সহনশীল দেশ। তারা ধর্মনিরপেক্ষতায় বিশ্বাস করে এবং সেখান থেকে পদস্খলন হলে ভারতের যে ঐতিহাসিক অবস্থান সেটা দুর্বল হবে বলে আমি মনে করি।’

নাগরিকত্ব বিল পাসের সময় যে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে সেটি ঠিক না বলে মন্তব্য করেন মন্ত্রী। বাংলাদেশে ধর্মীয় সম্প্রীতি অত্যন্ত বেশি দাবি করে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দেশে অন্য ধর্মের লোক নিপীড়িত নয়। সব ধর্মের লোক এখানে আছেন। সরকারি অনেক কর্মকর্তা অন্য ধর্মের লোক। সুতরাং তারা যে তথ্য দিয়েছে এখান থেকে নির্যাতিত হয়েছে—সেটি ঠিক না। যারা তথ্য দিয়েছেন এবং যারা তাদের বুঝিয়েছেন তারা সত্য কথা বলেননি। আমি আশা করবো আমাদের দেশে যারা অন্য ধর্মের লোক আছে তারা বিবৃতি দেবে যে এটি ঠিক না। আমরা আশা করি বাংলাদেশে দুশ্চিন্তা বা আতঙ্ক সৃষ্টি হয় এমন কোনও কাজ ভারত করবে না।’

এদিকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠির উপর গণহত্যা চালানো দেশটির সেনাবাহিনীর পক্ষ নেওয়ায় অং সান সুচির সমালোচনা করেছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক আদালতে অং সান সু চির মিয়ানমারকে ডিফেন্ড করাটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি নিজে সু চির মুক্তির জন্য আন্দোলন করেছি। এখন তার এই অধঃপতন দেখে আমার খুব দুঃখ লাগছে। আমি আশা করবো তিনি তার ভুল বুঝতে পারবেন এবং মানবতার পক্ষে কথা বলবেন।’

এমএস/এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি