ঢাকা, শনিবার   ২৩ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৯ ১৪২৭

নোয়াখালীতে যৌতুকের জন্য স্ত্রীর শরীর ঝলসে দিয়েছে স্বামী

নোয়াখালী প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৫:০৭, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৯

নোয়াখালীতে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রী নির্যাতন ও যৌতুকের অভিযোগ উঠেছে। স্ত্রীর মাথার চুল কেটে গরম খুন্তি দিয়ে সারা শরীর ঝলসে দিয়েছে পাষণ্ড স্বামী। ওই নারীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসক জানিয়েছেন ভুক্তভোগীর অবস্থা গুরুতর। 

বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্যে স্বামী কলির ওপর শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। বিদেশ যাওয়ার জন্য স্বামী উজ্জ্বলকে বাপের বাড়ি থেকে কয়েক বার টাকা এনে দেয় কলি। গত দুই মাস আগে সৌদি প্রবাসী উজ্জল দেশে ফেরার পর আবারও যৌতুকের জন্য কলির ওপর নির্যাতন শুরু করে। 

সর্বশেষ গত বুধবার রাতে যৌতুকের জন্য কলির মাথার চুল কেটে দিয়ে গরম খুন্তি দিয়ে সারা শরীর ঝলসে দেয় উজ্জল। এ সময় কলি চিৎকার করলে তাকে গলা কেটে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়। এক পর্যায়ে পালিয়ে বাপের বাড়িতে উঠেন কলি। সেখান থেকে কলিকে চিকিৎসার জন্য কবিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে সেখানে সন্ত্রাসী নিয়ে হামলা চালায় উজ্জল। 

সোমবার বিকেলে উন্নত চিকিৎসার জন্য কলিকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার সময় আবারও ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে উজ্জল। পরে স্থানীয় লোকজনের তাড়া খেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। 

খবর পেয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কলিকে দেখতে হাসপাতালে যান। এ সময় তিনি ঘটনার সঙ্গে জড়িতদেরকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন।

হাসপাতালের চিকিৎসক নাসির উদ্দিন জানান, কলির অবস্থা আশঙ্কাজন। তার পুরো শরীরে গরম লোহা দিয়ে ঝলসে দেওয়া হয়েছে।

যদিও ২০০৯ সালে পারিবারিকভাবে নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার বড় রামদেবপুর গ্রামের ইউসুফ আলীর মেয়ে নিলুফার ইয়াসমীন কলির সঙ্গে বেগমগঞ্জ উপজেলার খানপুর গ্রামের আবদুল মতিনের ছেলে মোশাররফ হোসেন উজ্জলের বিয়ে হয়। এই দম্পতির ৫ বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে। 

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি