ঢাকা, রবিবার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

পাঁচ শতাধিক নরনারী নগ্ন হলেন যার ডাকে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৪৩ ১২ জুলাই ২০১৮ | আপডেট: ১৫:৪৪ ১২ জুলাই ২০১৮

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন মহানগরী। গত সোমবারের এক ফুটফুটে সকাল। পাঁচ শতাধিক নগ্ন নারী-পুরুষ। উদ্দেশ্য একেবারেই নির্মল। ছবি তোলানো।

সংবাদ সংস্থার খবরে প্রকাশ, সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহর সাক্ষী থাকল এক বিরল দৃশ্যের। প্রায় ৫০০ নরনারী স্বেচ্ছায় নগ্ন হলেন খ্যাতনামা মার্কিন ফোটোগ্রাফার স্পেনসার টিউনিকের এক বিশেষ ফোটোশ্যুটের জন্য।

৫১ বছর বয়সি স্পেনসার টিউনিকের খ্যাতি এক অদ্ভুত জাতের ছবি তোলার জন্য। তিনি বিশালাকৃতির ন্যুড শ্যুট করে থাকেন। আজ পর্যন্ত প্রায় ৭৬টি প্রকাণ্ড মাপের হিউম্যান ইনস্টরেসন তিনি করেছেন পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গায়।

সম্প্রতি ইনস্টলেশনের জন্য টিউনিক বেছে নিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার মহানগর মেলবোর্নকে। তার ক্যামেরায় নিজের নগ্নতাকে বন্দি করার জন্য আবেদনপত্র জমা পড়েছিল ১২ হাজারেরও বেশি। তার মধ্যে থেকে ৫০০-র আশেপাশের মানুষকে বেছে নেওয়া হয় শ্যুটের জন্য।

এক সুপারমার্কেটের ছাদে এই শ্যুট সংঘটিত হয়। শ্যুটে অংশ নেওয়া মানুষ মুক্তকণ্ঠে জানিয়েছেন যে, এই অভিজ্ঞতা একেবারেই অনন্য। যদিও খুব কম সময়ের মধ্যেই টিউনিক তার কাজ সারেন, তবু এই অভিজ্ঞতাকে সারা জীবনে ভোলা যাবে না বলেই মন্তব্য করেছেন প্রতিযোগীরা।

প্রসঙ্গত, টিউনিক ২০০১ সাল থেকে শুরু করেছেন তার এই কাজ। মন্ট্রিল, লন্ডন, ক্লিভল্যান্ড, আমস্টারডামসহ বিভিন্ন শহরে তিনি এই ন্যুড হিউম্যান ইনস্টলেশনের প্রজেক্ট করেছেন। তার মতে, পোশাকমুক্ত অগণিত মানব এক অনন্য দৃশ্য রচনা করে, যার কোনও তুলনাই হয় না। নগ্নতা সেখানে যৌনগন্ধী নয়। তা এক অন্য দ্যোতনায় উদ্ভাসিত হয় তখন।

সূত্র: এবেলা

একে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি