ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৮ ১৭:৪৬:০৬

Ekushey Television Ltd.

পেরুতে শিশু মৃতদেহের গণকবর সনাক্ত   

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:০৮ পিএম, ৯ জুন ২০১৮ শনিবার | আপডেট: ০১:০৮ পিএম, ১০ জুন ২০১৮ রবিবার

পেরুতে শিশু মৃতদেহের একটি গণকবর সনাক্ত করেছে প্রত্নতত্ত্ববীদেরা। গণকবরটিতে অন্তত ৫৬টি শিশুর মৃতদেহ পাওয়া গেছে। ধর্মীয় ও সামাজিক প্রথার বলি হিসেবে এই শিশুদের হত্যা করা হয়েছিল বলে মনে করছে গবেষকেরা। গত মে মাসে এই মৃতদেহগুলো উদ্ধার করা হয়েছিল।  

পেরুর উত্তর উপকূলীয় এলাকায় এই গণকবরটির সন্ধান পাওয়া যায়। হুয়ানচাকো প্রদেশের পামাপা লা ক্রুজ এলাকার যে স্থানটিতে এই গণকবরটি পাওয়া যায় তার খুব কাছেই আরেকটি গণকবর এর আগে আবিষ্কৃত হয়েছিল। সেখানে ১৪০ জন শিশুর মৃতদেহ পাওয়া গিয়েছিল তখন। তবে গবেষকদের ধারণা এখন যে গণকবরটি পাওয়া গেছে তা হয়তো ছাড়িয়ে যেতে পারে আগেরটিকেও। প্রি-কলাম্বিয়ান যুগের চিমু সংস্কৃতির রীতি অনুযায়ী এসব শিশুদের হত্যা করা হয়েছিল।       

প্রত্বতত্ত্ববীদ গ্যাব্রিয়েল প্রিটো এএফপি’কে বলেন, “এখন পর্যন্ত আমরা ৫৬টি শিশুর মৃতদেহ সনাক্ত করতে পেরেছি। তবে এই সাইটটি এত বড় যে, আগের পাওয়া মৃতদেহের দ্বিগুণ সংখ্যক মৃতদেহ আমরা এখানে পেতে পারি”।

প্রিটো জানান, এসব মৃতদেহ সাদা কাফনের কাপড়ে মুড়িয়ে সাগরের দিকে মুখ করে কবর দেওয়া হয়েছিল। শিশুগুলোর বয়স ছিল ছয় থেকে ১৪ এর মধ্যে।

তিনি আরও বলেন, “লক্ষণীয় বিষয় এই যে, মৃতদেহগুলোকে দাফনের আগে বুক চিড়ে দেওয়া হয়েছিল। এর ফলে বুকের অস্থিগুলো বের হয়েছিল। ঠিক একই রকমভাবে হুয়ানচাকো’র আগের সাইটটিতে ঐ মৃতদেহগুলো পেয়েছিলাম আমরা। হুয়ানচাকো এমন একটি জায়গা যেখানে চিমু সংস্কৃতির কারণে প্রচুর পরিমাণে শিশুদের উতসর্গ করা হয়”।

সূত্রঃ এনডিটিভি

//এস এইচ এস//এসি 

   



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি