ঢাকা, মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯, || কার্তিক ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

প্রতিবন্ধী কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, কলেজ ছাত্রের বিরুদ্ধে মামলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:২৯ ১৩ অক্টোবর ২০১৯

বাগেরহাটে ধর্ষণের শিকার এক বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে গুরুত্বর অবস্থায় ওই কিশোরীকে রোববার সকালে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শনিবার রাতে কিশোরীর মা বাদী হয়ে রনি পাইক নামে এক কলেজ ছাত্রকে আসামি করে বাগেরহাট মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

আসামি রনি পাইক বাগেরহাট সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নের জয়গাছী গ্রামের হাবিবুর রহমান পাইকের ছেলে। পুলিশ আসামিকে আটকের চেষ্টা করছে বলে জনায়। 

মামলা ও পারিবারিকসূত্রে জানা যায়, গত ৩০ আগষ্ট দুপুরে বাকপ্রতিবন্ধী ওই কিশোরীর মা পাশের গ্রামে বাবার বাড়ি বেড়াতে গেলে প্রতিবেশী রনি শেখ ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরে তার মা বিকেলে বাড়ি ফিরে এলে ওই কিশোরী তার মাকে ইশারা-ইঙ্গিতে বিষয়টি জানালে তিনি বুঝতে পারেননি। 

এর কয়েকদিন পরে ওই কিশোরী অসুস্থ হয়ে পড়লে তার মা তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। এসময় ডাক্তার তাকে জানায় যে, কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা। 

ধর্ষণের শিকার ওই প্রতিবন্ধী কিশোরীর মা বলেন, ঘটনাটি জানাজানি হলে ওই ছেলের পরিবার আমাদের কাছে প্রথমে ২০ হাজার টাকা পরে এক লাখ টাকা নিয়ে বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করে। শনিবার (১২ অক্টোবর) মেয়ের অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হলে রাতে মামলা করি এবং হাসপাতালে ভর্তি করি। আমার এ প্রতিবন্ধী মেয়ের যারা সর্বনাশ করেছে, এ ঘটনার বিচার দাবি করছি। 

বাগেরহাট সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, ১৬ বছর বয়সী প্রতিবন্ধী একটি মেয়েকে হাসপাতালে ভার্ত করা হয়েছে। আমরা তাকে চিকিৎসা দিচ্ছি। সে ৪২ দিনের অন্তঃসত্ত্বা। তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা চলছে।

বাগেরহাট পুলিশ সুপার পঙ্কজ চন্দ্র রায় বলেন, কিশোরীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে বাগেরহাট মডেল থানায় রনি পাইক নামের এক কলেজ ছাত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
 
এনএস/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি