ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারি, ২০১৯ ১৬:৪০:১৫

Ekushey Television Ltd.

ফেডেরারের সামনে ইস্তোমিন, অস্বস্তিতে সেরিনা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:২২ পিএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৯ শুক্রবার

অস্ট্রেলীয় ওপেনে গত দু’বারের চ্যাম্পিয়ন রজার ফেডেরারকে এবার প্রথম রাউন্ডে খেলতে হবে উজবেকিস্তানের অবাছাই ডেনিস ইস্তোমিনের সঙ্গে। এই ইস্তোমিন এখানে দু’বছর আগে বড় অঘটন ঘটিয়েছিলেন দ্বিতীয় রাউন্ডে নোভাক জোকোভিচকে হারিয়ে। এবার যা সূচি হয়েছে, তাতে কোয়ার্টার ফাইনালে ফেডেরারকে খেলতে হতে পারে গতবারের ফাইনালিস্ট মারিন চিলিচের বিরুদ্ধে। সব চেয়ে বড় কথা, সূচিতে ফেডেরারের দিকেই রয়েছেন রাফায়েল নাদাল। আর নোভাক জোকোভিচ উল্টো দিকে। যার মানে দাঁড়াচ্ছে, ফাইনালের আগে সার্বিয়ান মহাতারকার মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা নেই রজারের। পাশাপাশি বরিস বেকারের ভবিষ্যদ্বাণী, মেলবোর্নে এবার ট্রফি তুলবেন নোভাকই। আর ফেডেরার সফল হলে? জিতবেন ১০০ নম্বর এটিপি খেতাব। যদিও ফেডেরার নিজে বললেন, ‘৯৯টা খেতাব তো জিতেছিই! সেটাও কম না। ১০০ নম্বরটা পেলে খুশি হব। কিন্তু সেটা না জিতে অবসর নিলেও খেদ থাকবে না। এই বয়সে যে, প্রথম দশে আছি সেটাই আমার কাছে বিরাট ব্যাপার।’

পুরুষদের শীর্ষ বাছাই জোকোভিচই। এবার চ্যাম্পিয়ন হলে তিনি মেলবোর্নে তার সাত নম্বর খেতাব জিতবেন। সেই সঙ্গে গত মৌসুমে উইম্বলডন ও যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের পরে টানা তৃতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম পাবেন। প্রথম রাউন্ডে তাকে খেলতে হবে যোগ্যতা অর্জন করে আসা কারও সঙ্গে। তবে দ্বিতীয় রাউন্ডে তার মুখোমুখি হওয়ার সম্ভাবনা ফ্রান্সের জো উইলফ্রিড সঙ্গার। আর কোয়ার্টার ফাইনালে হয়তো দেখা যাবে নোভাক বনাম কে নিশিকোরির লড়াই।

পাশাপাশি রাফায়েল নাদাল এবার প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় বাছাই। ব্রিসবেন ইন্টারন্যাশনাল টেনিস থেকে নাম তুলে নেওয়ায় যার সুস্থতা নিয়ে এখনও সংশয় রয়েছে। প্রথম রাউন্ডে তার প্রতিদ্বন্দ্বী অস্ট্রেলিয়ার অবাছাই খেলোয়াড় জেমস ডাকওয়ার্থ। গতবারের সেমিফাইনালিস্ট ও ১৩ নম্বর বাছাই কাইল এডমন্ডসের সঙ্গে হয়তো চতুর্থ রাউন্ডে খেলবেন তিনি। সম্ভাব্য সেই ম্যাচ জিতলে কোয়ার্টার ফাইনালে নাদাল বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার ‘বিগ সার্ভার’ কেভিন অ্যান্ডারসনের দেখা হতে পারে।

মেয়েদের বিভাগে সেরিনা উইলিয়ামস বেশ কঠিন সূচি পেয়েছেন। প্রথম রাউন্ডে তার প্রতিপক্ষ জার্মানির তাতিয়ানা মারিয়া। সেরিনা এবার ষোলো নম্বর বাছাই। তার লক্ষ্য অষ্টমবার অস্ট্রেলীয় ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ২৪টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে মার্গারেট কোর্টের অনন্য নজির স্পর্শ করা।

কঠিন বিশ্বের এক নম্বর নারী তারকা সিমোনা হালেপের কাজটাও কঠিন। পিঠের সমস্যার জন্য বেশ কিছু দিন কোর্টের বাইরে ছিলেন। মেলবোর্নে খেলবেন চার মাসের দীর্ঘ বিরতির পরে মাত্র একটি ম্যাচ খেলেই। প্রথম রাউন্ডে তার লড়াই কাইয়া কানেপির সঙ্গে। গত আগস্ট মাসে এস্তোনিয়ার এই মেয়ে কিন্তু হালেপকেই যুক্তরাষ্ট্র ওপেনের প্রথম রাউন্ডে হারিয়ে চমকে দিয়েছিলেন। যদি এই বাধা তিনি পেরোতে পারেন, তাহলে তৃতীয় রাউন্ডে হয়তো হালেপকে খেলতে দেখা যাবে ভিনাস উইলিয়ামসের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি এখানে গতবারের চ্যাম্পিয়ন ক্যারোলিন ওজ়নিয়াকি প্রথম রাউন্ডে খেলবেন বেলজিয়ামের অ্যালিসন ফাঁ আইতফাঁর সঙ্গে। সব কিছু ঠিকঠাক এগোলে তৃতীয় রাউন্ডে ওজ়নিয়াকি বনাম মারিয়া শারাপোভা লড়াই হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। ওজ়নিয়াকি বলেছেন, ‘খেতাব ধরে রাখার জন্য কোনও গ্র্যান্ড স্ল্যামে নামাটা আমার কাছে স্বপ্নের মতো। আর মেলবোর্নে খেলতে পারলে মনে হয় নিজের বাড়ির উঠোনেই খেলছি। এই ধরনের কোর্ট সব সময়ই আমার খেলার সঙ্গে মানানসই।’ তার সম্ভাব্য চ্যালেঞ্জার কি সেরিনা? এমন প্রশ্নে ওজ়নিয়াকির জবাব, ‘আজ পর্যন্ত যত খেলোয়াড়ের সঙ্গে খেলেছি তাদের মধ্যে সেরিনাই সেরা। অবশ্য এটা আমি না বললেও চলে। সব সময়ই ওর খেলা দেখে শিখেছি। সন্তানের জন্ম দিয়ে সেরিনা কোর্টে ফিরেছে। কিন্তু এখনও ওকে হারানোই সব চেয়ে কঠিন।’

সূত্র: আনন্দবাজার

একে//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি