ঢাকা, ২০১৯-০৬-১৬ ১৭:৩৪:০১, রবিবার

Ekushey Television Ltd.

‘বিজয়ের মহোৎসব’ এর চতুর্থ দিনের আয়োজন অনুষ্ঠিত

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৩:০৯ পিএম, ২৫ ডিসেম্বর ২০১৮ মঙ্গলবার

‘বিজয়ের মহোৎসব ২০১৮’ শিরোনামে সপ্তাহব্যাপী সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আরোজন করেছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। একাডেমির উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে ২১-২৭ ডিসেম্বর নানা আয়োজনে এই উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী’র পরিকল্পনায় বিজয়ের মাসে ‘অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় শিল্প নিয়ে পৌছে যাবো আমরা উন্নতির শিখরে’ শ্লোগানে এই আয়োজন চলবে ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রতিদিন বিকাল ৪ টা ৩০ মিনিটে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হচ্ছে। থাকছে আলোচনা, চলচ্চিত্র, নাটক, পালা, সঙ্গীত ও নৃত্য, অ্যাক্রোবেটিকসহ নানান ধরনের পরিবেশনা।

গতকাল সোমবার সাড়ে ৪ টায় একাডেমির উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে শুরু হয় চতুর্থ দিনের আয়োজন। শুরুতে প্রামাণ্যচিত্র ‘বাংলাদেশের মুক্তিসংগ্রামের ইতিহাস’ এবং স্বল্পদৈঘ্য চলচ্চিত্র ‘ইতিহাসের সন্ধানে’ ও ‘ফ্রোজেন টিয়ার্স’ প্রদর্শিত হল।

শিল্প সমালোচক ও বরেণ্য শিক্ষাবিদ অধ্যাপক নজরুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. আহকাম উল্লাহ এবং অভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি শহীদুল আলম সাচ্চু। স্বাগত বক্তা প্রদান করেন একাডেমির গবেষণা ও প্রকাশনা বিভাগের পরিচালক জসিম উদ্দিন।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দেশের গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছে নৃত্য সংগঠন নটরাজ ও নৃতকথা। সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী বিজন মিস্ত্রী, চন্দনা মজুমদার, সোমা ব্যপারী, ইউসুফ এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির বাউল সংগীতদল। আনন জামান-এর রচনায় এবং আশিকুর রহমান লিয়ন-এর নির্দেশনায় নাটক শ্রাবণ ট্যাজেডি’র অংশ বিশেষ পরিবেশন করেন মহাকাল নাট্যসম্প্রদায় এবং কনটেম্পরারি মিউজিক্যাল থিয়েটার ইম্প্রোভাইজেশন ‘খাঁচা ভাঙার গান’ পরিবেশন করে প্রাচ্যনাট। এছাড়া পরিবেশিত হয় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির অ্যাক্রোবেটিক দলের প্রদর্শনী এবং ঐতিহ্যবাহী লোকনাট্য সঙযাত্রা পরিবেশিত হয়। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপন করেন মো. আলমগীর।

একে//

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি