ঢাকা, মঙ্গলবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, || আশ্বিন ৭ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

বিরোধীরা পাকিস্তানের সুরে কথা বলছে: মোদী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:৫৩ ১১ ডিসেম্বর ২০১৯

লোকসভায় নাগরিকত্ব সংশোধন বিল (সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিল-সিএবি) নিয়ে প্রায় সাত ঘণ্টার দীর্ঘ আলোচনা পর্বে অনুপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে রাজ্যসভায় বিল পেশের সূচনা পর্বেই বিরোধীদের সমালোচনায় মুখর হলেন তিনি। খবর আনন্দবাজার পত্রিক’র।

৩৭০ অনুচ্ছেদ রদ পর্বে পাকিস্তানকে জড়িয়ে যে অভিযোগ তুলেছিলেন, সেই অভিযোগ তুলে বিরোধী দলগুলোর সমালোচনা করেছেন মোদী। তিনি বলেছেন, ‘কিছু কিছু দল পাকিস্তানের সুরে কথা বলছে।’ স্বাভাবিকভাবেই মোদীকে লক্ষ্য করেই সমালোচনায় মুখর হয়েছে কংগ্রেস। পাশাপাশি বিলের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে শরনার্থীদের আশ্বস্ত করারও চেষ্টা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

সিএবি নিয়ে পাকিস্তানের অবস্থান কী? মঙ্গলবারই বিলের সমালোচনা করে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ‘এই বিল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইনের পরিপন্থী। তা ছাড়া সিএবিতে ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক চুক্তিও লঙ্ঘিত হয়েছে। 

কংগ্রেসের বক্তব্য, এই বিল বৈষম্যমূলক এবং সংবিধানের সমানাধিকার ও ধর্মনিরপেক্ষতার বিরোধী। ২০১৫ সালের আগে পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আসা মুসলমানদেরও নাগরিকত্ব দেওয়ার দাবিও তুলেছে কংগ্রেস।

এই প্রেক্ষাপটে আজ বুধবার রাজ্যসভায় পেশ হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। তার আগে উচ্চকক্ষের রণকৌশল ঠিক করতে বৈঠকে বসে বিজেপির সংসদীয় দল। বৈঠকেই নরেন্দ্র মোদী বলেন, ‘কিছু দল এমন ভাষা ব্যবহার করছে, ঠিক যে ভাষায় পাকিস্তান কথা বলে।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘সিটিজেনশিপ (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল ইতিহাসে স্বর্নাক্ষরে লেখা থাকবে। ধর্মীয় কারণে অত্যাচারিত হয়ে শরণার্থী হয়ে যাঁরা এ দেশে আশ্রয় নিয়েছেন, তাঁদের স্থায়ী স্বস্তি দেবে। সিএবি যে আনন্দ ও স্বস্তি নিয়ে আসবে, তা পরিমাপের অযোগ্য।’

এমএস/এসি
 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি