ঢাকা, রবিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ভুঁইয়া সুপার মার্কেট পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে মামলা

সাভার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২৩:০০ ১৭ নভেম্বর ২০১৯

আশুলিয়া বাইপাইল বাস স্ট্যান্ডে থানা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক ও স্বনির্ভর ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য মইনুল ইসলাম ভুঁইয়ার মালিকানাধীন ভুঁইয়া সুপার মার্কেটের ১৬টি দোকান ও বেশ কয়েকটি বাসের টিকেট কাউন্টার রাতের আধারে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীর ম্যানেজার সুজন।

শুক্রবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাইপাইল ট্রাফিক বক্সের বিপরীতে এই আগুনের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় রোববার মইনুল ইসলামের ম্যানেজার সুজন বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় অভিযোগটি দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হলো- সেলিম ওসমান (৪৫), আব্দুল আজিজ (৬০), জাহাঙ্গীর (৫০), দেলোয়ার হোসেন (৪০), আনোয়ার হোসেন (৪৫)সহ অজ্ঞাত আরো ৭/৮ জন।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, বেশ কিছুদিন ধরে মার্কেটটি অবৈধভাবে দখলের জন্য উক্ত আসামীরা পায়তারা করে আসছিল। শুক্রবার দিবাগত রাতে বিবাদীরা মার্কেটটি দখলের উদ্দেশ্যে অনধিকারভাবে প্রবেশ করে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে এসে ফায়ার সার্ভিস আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। আগুন নিয়ন্ত্রনে আসার আগেই মার্কেটের আদর্শ হোটেল, আলমগীর টিকে স্টোর, মোতালেব টিকে স্টোর, রকি বাস কাউন্টার, গুলশান স্টোর, পিংকি বাস কাউন্টার, রেখা বাস কাউন্টার, মামুন এন্টারপ্রাইজ, আল- হামরাই এন্টারপ্রাইজসহ প্রায় ১৬ টি দোকান ভস্মিভূত হয়। এতে ক্ষয়- ক্ষতি হয় প্রায় ১৫ লাখ টাকার বেশি।

আশুলিয়া থানার ওসি (ইন্টেলিজেন্স) তসলিম উদ্দিন বলেন, অগ্নিকান্ডের ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

উল্লেখ্য, বাইপাইলের বাস স্ট্যান্ডের অগ্নিকান্ডের ঘটনায় পল্লী বিদ্যুতের প্রধান লাইনটি ঝুঁকির মধ্যে থাকায় দিনের বেশিরভাগ সময় বন্ধ রাখা হয়েছিল। বর্তমানে বিদ্যুতের ক্যাবলটিও পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। 

কেআই/আরকে

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি