ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মমতার বক্তব্যে ক্ষুব্দ আসাউদ্দিন ওয়েসি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:২৩ ১৯ নভেম্বর ২০১৯

‘সংখ্যালঘু বিচ্ছিন্নতাবাদ’ বলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর ক্ষুব্দ হয়েছেন এআইএমএম নেতা আসাউদ্দিন ওয়েসি।

সোমবার একটি অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন ‘হিন্দুদের মধ্যে যেমন বিচ্ছিন্নতাবাদ রয়েছে, তেমনই সংখ্যালঘুদের মধ্যেও বিচ্ছিন্নতাবাদ বাড়ছে। একটি রাজনৈতিক দল রয়েছে, এবং তারা বিজেপির থেকে টাকা নিয়েছে, তারা হায়দরাবাদের দল, পশ্চিমবঙ্গের নয়’।

এনডিটিভি জানায়, বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী জেলায় একটি সভায় বক্তব্যে এমনটাই বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

অন্যদিকে, হায়দরাবাদের সাংসদ তথা এআইএমএম নেতা আসাউদ্দিন ওয়েসি এর জবাবে বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা অনুযায়ী, যদি আমদের কাজ বিচ্ছিন্নতাবাদ হয়, তাহলে আমার কিছু বলার নেই। বিচ্ছিন্নতাবাদ সেটাই, তিনি পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে ঢুকতে দিয়েছেন, যেহেতু রাজ্যে মুসলিমদের মধ্যে মানবতার সূচক কম, সেই কারণে, তিনি মুসলিমদের নীচু নজরে দেখছেন।

তিনি বলেন, ‘ভোটের জন্য মুসলিমদের তোষণ বন্ধ করুন’।

আসাউদ্দিন ওয়েসি বলেন, এই মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রীর ‘ভীতি’ ও হতাশার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। হায়দরাবাদের এই সাংসদের ভাষায়, ‘আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বাংলার মুসলিমদের আপনি বার্তা দিচ্ছেন যে, ওয়েসির দল একটি ভয়ঙ্কর শক্তিতে পরিণত হয়েছে। এই ধরণের মন্তব্য করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর ভীতি এবং হতাশা দেখাচ্ছেন’।

ট্যুইটে তিনি আরও লেখেন, যে কোনও সংখ্যালঘুদের মধ্যে বাংলার মুসলিম সম্প্রদায় মানবতার সূচকে সবচেয়ে খারাপ অবস্থায়, এটা বলা ধর্মীয় বিচ্ছিন্নতাবাদ নয়। তিনি সেখানে পোস্ট করেন, ‘হায়দরাবাদের দল থেকে দিদি যদি শঙ্কিত থাকেন, তাহলে তাঁর আমাদের বলা উচিত বাংলার ৪২টি আসনে কীভাবে বিজেপি ১৮টিতে জিতল’। গত লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় ভাল ফল করেছে গেরুয়া শিবির। সেই ফলাফলকে বাংলায় বিজেপির ভাল উথ্থান হিসেবেই দেখছে অনেকে।

এসি

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি