ঢাকা, মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

মহাকাশে নাসার নজরে গাড়ি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:০৬ ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

গাড়িতে চড়ে মহাকাশে যেতে পারলে ভালই হতো। তাহলে আর কোটি কোটি টাকা খরচ করে রকেট তৈরি করার প্রয়োজন হতো না। গত মঙ্গলবার ফ্যালকন হেভি নামের শক্তিশালী ইঞ্জিনবিশিষ্ট মহাকাশযানের সফল উড্ডয়ন করেছে ব্যক্তি মালিকানাধীন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা স্পেসএক্স। সঙ্গে মজা করেই পাঠানো হয় লালরঙা এক স্পোর্ট কার। আর সেটি যে, সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এলন মাস্কের টেসলা রোডস্টার, তা এখন অনেকেরই জানা। এরপর থেকেই গাড়িটি মহাকাশের কোথায় রয়েছে তা নিয়ে মানুষের কৌতূহলের শেষ নেই।

সৌরজগতের গ্রহ-উপগ্রহ থেকে শুরু করে অসংখ্য গ্রহাণু-ধূমকেতুও নিয়মিত নজরে রাখেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। তাদের সে হিসাবে যোগ হলো লালরঙা এই গাড়িটি। তাই এলন মাস্কের জন্য গাড়িটি মজার বিষয় হলেও নাসার জন্য নয়।

নাসার মুখপাত্র ডোয়ান ব্রাউন বলেন, মহাকাশে যেকোনো কৃত্তিম বস্তুর তালিকা রাখতে হয়। যাতে ভবিষ্যতে কোনো আবিষ্কারের সঙ্গে তা গুলিয়ে ফেলা না হয়। গ্রহ-উপগ্রহের সঙ্গে নাসার জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা রীতিমতো গুরুগম্ভীর ভঙ্গিতেই নজরে রাখছেন মাস্কের গাড়িটিকে।

সাধারণত মহাকাশে পরীক্ষামূলকভাবে রকেট উৎক্ষেপণের ক্ষেত্রে পাথর বা কংক্রিট দেওয়া হয়। তবে এ রকেটটিতে পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণের সময় এলন মাস্ক তার ব্যক্তিগত রোডস্টার গাড়িটি ব্যবহার করেন। গাড়িটির চালক সিটে নভোচারীর পোশাক পরিয়ে রাখা হয়েছে এক মানবপুতুল। পুতুলটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্টার ম্যান’ বা নক্ষত্রমানব। আর্ক নামে একটি শক্তিশালী তথ্য ধারণের যন্ত্র দেওয়া হয়েছে গাড়িটিতে। আর গাড়িটির যন্ত্রাংশের গায়ে স্পেসএক্সের ছয় হাজার কর্মীর নাম খোদাই করে লিখে দেওয়া হয়েছে।  

উৎক্ষেপণের পর গাড়িটিকে নিয়ে ঠিকভাবেই মহাকাশে পৌঁছায় ফ্যালকন হেভি রকেটটি। এরপর মহাকাশে নিজস্ব গন্তব্যে এগিয়ে যাচ্ছে এটি। গাড়িটি রকেটে কিভাবে আছে, তা দেখার জন্য একটি ক্যামেরাও স্থাপন করা হয়েছে। তা থেকে প্রায় চার ঘণ্টা সরাসরি সম্প্রচার দেখা গেছে পৃথিবী থেকে। এরপর ব্যাটারি শেষ হয়ে যাওয়ায় তা আর দেখা যায়নি। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা গাড়িসমেত ফ্যালকন এক্স রকেটটির ওপর নজরদারি অব্যাহত রেখেছে। এজন্য তারা এটিকে শ্রেণীবদ্ধ করে একটি নম্বরও প্রদান করেছে। ভবিষ্যতে যেন কোনো উল্কাখণ্ডের সঙ্গে মিলিয়ে ফেলা না হয় সেজন্য এ কাজটি করেছে তারা।

এলন মাস্ক তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম অ্যাকাউন্টে ফ্যালকন রকেটের ভেতরে গাড়িটির ছবি ও ভিডিও শেয়ার করেছেন। প্রাথমিকভাবে অনেকেই মনে করেছিলেন, গাড়িটি মঙ্গলগ্রহের কক্ষপথে প্রদক্ষিণ করবে। তবে পরবর্তীতে জানা যায়, এটি সূর্যের চারদিকেই প্রদক্ষিণ করবে।

সূত্র: সিএনএন

টিকে


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি