ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২০, || মাঘ ১১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মায়ের মতো সেজে ড্রাইভিং টেস্ট দিতে গিয়ে ধরা খেলো ছেলে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:১৮ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯

তিন বার টেস্ট দিয়েও ফেল করেছেন মা। তাই এবার মায়ের ছদ্মবেশ নিয়ে পরীক্ষা দিতে পৌঁছে গেলেন ছেলে। কিন্তু পরীক্ষা দেওয়ার আগেই ছেলের ছদ্মবেশ ধরা পড়ে যায়। পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাকে।

ঘটনাটি ব্রাজিলের। নোভো মুটুম পারান শহরে বাসিন্দা ষাট বছরের মারিয়া শ্যায়েভ ড্রাইভিং লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছিলেন। কিন্তু বার বার চেষ্টা করেও ড্রাইভিং টেস্টে পাস করতে পারছিলেন না। শেষে তাঁর ৪৩ বছরের ছেলে হেইটার মায়ের সাহায্যে এগিয়ে আসেন।

টেস্ট দিতে যাওয়ার আগে মায়ের মতো হুবহু সাজতে গিয়ে মহিলাদের পোশাক পরে নেন ছেলে। সেই সঙ্গে মাথায় চাপিয়ে নেন পরচুলা। এখানেই শেষ নয়, তিনি নখে মহিলাদের মতো রং লাগান। মায়ের মতো বয়স্ক দেখানোর জন্য মুখে মেকাআপও নেন। এরপর যান ড্রাইভিং টেস্ট দিতে।

যদিও প্রথম ধাপ পেরিয়ে গিয়ে গাড়ির চালকের আসনে বসে পড়েন হেইটার। কী ভাবে গাড়ি পার্ক করতে হবে সেই পরীক্ষা চলছিল। তখন ড্রাইভিং ইন্সপেক্টরের সন্দেহ হলো তাকে দেখে। লাইসেন্সের জন্য দেওয়া নথির ছবির সঙ্গে ড্রাইভিং সিটে বসা মহিলাকে দেখতে কেমন যেন আলাদা আলাদা লাগছে। সেই সময় চ্যালেঞ্জ করে বসেন ইন্সপেক্টর।

পরে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে ইনস্পেক্টর অ্যালাইন মেনডোনকা জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তি যতটা সম্ভব স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করছিলেন। তিনি মহিলাদের মতো গয়নাও পরেছিলেন। তারপরও তাঁকে দেখে সন্দেহ হয়। তাই জেরা করতেই আসল কাহিনী বেরিয়ে আসে।

প্রতারণার দায়ে পুলিশ হেইটারকে গ্রেফতার করে। পুলিশকে হেইটার জানিয়েছেন, মায়ের হয়ে তিনি পরীক্ষা দিতে এসেছেন, তা তাঁর মা জানেন না। পরে হেইটারকে জরিমানা করে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এএইচ/

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি