ঢাকা, রবিবার   ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, || পৌষ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

রাণু নোংরা রাজনীতির শিকার!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২৩:২৭ ২১ নভেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ০০:০৮ ২২ নভেম্বর ২০১৯

রাণুকে নিয়ে আলোচনা সমালোচনার শেষ নেই। কিন্তু কেন?  খ্যাতির বিড়ম্বনা! নাকি নোংরা রাজনীতি! সম্প্রতি রাণুর ছবি নিয়ে সমালোচনায় বিদ্ধ হতে থাকেন তিনি।

এ নিয়ে রাণু মণ্ডলের মেকআপ আর্টিস্ট জানিয়েছেন, তাঁকে যেমন সাজানো হয়েছিল সেই ছবি সোশ্যালে দেওয়া হয়নি। যে ছবি দেখে ভক্তরা ক্ষুব্ধ সেটি নকল! মেকআপ আর্টিস্ট সন্ধ্যা রাণুর আসল ছবি সোশ্যালে শেয়ার করে বলেছেন, স্টেশনবাসিনী আজ জনপ্রিয়তার চূড়ায় বসে। রূপকথার গল্পের মতো রাণুর এই উন্নতি নিতে পারছেন না অনেকেই। তাই তাঁকে নীচে নামাতে এই ধরনের নোংরা রাজনীতি করা হচ্ছে তাঁর সঙ্গে।

রাণুকে তিনি সাজিয়েছিলেন। তাই তিনি জানেন, কোনা আসল ছবি কোনটা নকল। একই সঙ্গে রাণুকে সমর্থন জানিয়ে তিনি বলেন, এত কুৎসিত সাজে মোটেই র্যাম্পে হাঁটেননি রাণু। সন্ধ্যার এই পোস্ট থেকে নড়ে বসেছে নেটদুনিয়া। সত্যি-মিথ্যে যাচাই না করে শিল্পীকে একতরফা ব্যঙ্গ করায় অনেকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহারের দিকে। 

রাণুর আসল-নকল ছবি একসঙ্গে পোস্ট করেন সন্ধ্যা। এরপরেই আঙুল তুলেছেন নেটিজেনদের দিকে। বলেছেন, 'আপনারা দেখলেই বুঝবেন দুটি ছবির পার্থক্য। একটিতে আমি সুন্দর করে রাণুকে সাজিয়েছি। অন্যটি, ফটোশপে এডিট করা। যা দেখে সবাই জোকস, মিম বানিয়েছেন। আমারও নকল ফটো দেখে প্রথমে হাসি পেয়েছিল। কিন্তু যেভাবে রাণুকে অপমান, অসম্মান করা হচ্ছে তাতে আর মুখবন্ধ করে থাকা সম্ভব হল না। এভাবে কাউকে ছোট করে বড় হওয়া যায় না। অকারণে এভাবে কাউকে অপমান করার কোনও মানে হয় না। এতে তো আমার কাজও অপমানিত হচ্ছে!'

প্রসঙ্গত, ভিডিওয়ে রাণুর সাজ, মেকআপ দেখে ভক্তরা প্রথমে হাসবেন না কাঁদবেন, বুঝেই উঠতে পারেননি। সোশ্যালে ভিডিও আসতেই নিমেষে তা ছড়িয়েছিল নেটপাড়ায়। যথারীতি নিন্দার ঝড়ে তোলপাড় নেটবিশ্ব। ট্রোলড হয়েছেন রাণু আবারও। সবার মুখে একটাই জিজ্ঞাসা ছিল, রাণুর কি মাথাখারাপ হয়ে গেছে? নাকি, খ্যাতির বিড়ম্বনায় ফেঁসেছেন? না হলে এই ধরনের সাজপোশাক করে কেউ সবার সামনে র্যাম্পে হাঁটেন। রাণুর মেকআপ সেন্স নিয়েও অনেকে ব্যঙ্গ করেছেন। তবে সন্ধ্যার পোস্ট করা ছবি সামনে আসতেই মুখে কুলুপ নিন্দুকদের।

এসি

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি