ঢাকা, সোমবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম’ শুরু

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২৩:৪৩ ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

‘শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম’ শুরু করেছে বাংলাদেশ স্কাউটস ও ‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’। টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা-৪ অর্জনের অংশ হিসেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেওয়া পরিপত্র (২৭ জানুয়ারি, ২০১৯ খ্রিঃ) অনুসরণ করে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের মাঝে পরিচ্ছন্নতার বার্তা ছড়িয়ে দেওয়া এবং একটি সুস্থ ও সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ে তোলার লক্ষ্যে এ কার্যক্রম। 

দেশের স্কুল শিক্ষার্থীদের মাঝে পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি সুন্দর, সুস্থ ও পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ে তোলাই এই ক্যাম্পেইনের উদ্দেশ্য। এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা ও শ্রেণিকক্ষ এবং পয়ঃনিস্কাশন ব্যবস্থা, প্রতিষ্ঠানের বহিরাঙ্গন পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম ইত্যাদি সম্পর্কে সচেতন করা এবং তাদেরকে পরিচ্ছন্নতার গুরুত্ব স¤পর্কে জানানো হয়। এরপর সকলকে সঠিকভাবে হাত ধোয়ার নিয়ম দেখানো ও অনুশীলন করানো হয়। সম্প্রতি, আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ প্রাঙ্গণে ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক, এমপি। তিনি প্রায় ৭০০ জন ছাত্রীদের পরিচ্ছন্নতার শপথ পাঠ করান। 

এই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সারা বাংলাদেশের স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা, শ্রেণীকক্ষ ও স্কুল আঙিণা পরিচ্ছন্নতা, টয়লেট ব্যবহার ও হাত ধোয়া সংক্রান্ত শিক্ষা ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ছড়িয়ে দেওয়া হবে। এ ছাড়াও সপ্তাহে একদিন শিক্ষার্থীদের পরিচ্ছন্নতার শপথ করানো হবে। 

কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক, এমপি বলেন, “আজকের এই পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশের উদ্যোগ মানুষের মাঝে উন্নত মূল্যবোধ গড়ে তুলতে সহয়তা করবে। এটি দেশের জন্য একটি যুগান্তকারী উদ্যোগ। যেভাবে তরুণরা এগিয়ে যাচ্ছে ঠিক সেই ভাবে পরিছন্নতাকেও এগিয়ে নিয়ে যাবে। এছাড়াও বাংলাদেশ স্কাউটসরা দেশের বিভিন্ন দুর্যোগের সময় বিশেষ ভাবে ভূমিকা রেখেছে”। 

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ স্কাউটস-এর জাতীয় কমিশনার (সমাজ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য) ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ শাহ্ কামাল বলেন, “আমরা বাংলাদেশ স্কাউটস এর শপথ বাক্যটি পালন ও ধারণ করতে পারলে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকেই পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার কাজ শুরু হবে। প্রধানমন্ত্রী অনেক আগে থেকেই পরিচ্ছন্ন গ্রাম, পরিচ্ছন্ন শহর এবং পরিচ্ছন্ন দেশ করার জন্য কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যোগ এর সাথে আরো যুক্ত হলো ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ স্কাউটস। যার মাধ্যমে দেশেভ প্রতিটি মানুষের মাঝে এই বার্তা ছড়িয়ে পড়বে”। 

‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’-এর মুখ্য সমন্বয়ক সালাউদ্দিন আহমেদ তারেক বলেন, “দেশের প্রতিটি মানুষের মাঝে পরিচ্ছন্নতার বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য তিন বছর আগে থেকে কাজ করছে ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ। আমরা নিজেরাই নিজেদের চলার পথ অপরিষ্কার রাখি। যার কারণে আমরা রাস্তাতেই ঠিকমতো হাঁটতেই পারি না। এই ব্যবস্থার পরিরর্তন আমাদেরকেই নিয়ে আসতে হবে। আমি বাংলাদেশ স্কাউটসকে বিশেষ ধন্যবাদ জানাতে চাই, কেননা বাংলাদেশ স্কাউটসকে পাশে না পেলে আমাদের এতদূর আসা সম্ভব হতো না।” 

‘ডেটল হারপিক পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ’- এর পরিচ্ছন্ন দূত চিত্রনায়ক রিয়াজ বলেন, “যে দেশে শহীদদের রক্ত ছড়িয়ে আছে সেই দেশকে যদি অপরিচ্ছন্ন রাখি তাহলে শহীদদের অবমাননা করা হয়। সেই কারণে হলেও আমরা যেন আজকে থেকে সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে পরিস্কার থাকি এবং দেশকে পরিচ্ছন্ন রাখি। তাই ভবিষ্যত প্রজন্মের মাধ্যমে পুরো দেশে এই বার্তা ছড়িয়ে দিতে চাই।” 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি