ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯, || শ্রাবণ ৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

শোভন-রাব্বানীর উদ্দেশে যা বললেন এই পদবঞ্চিত নেত্রী

প্রকাশিত : ১৬:০৪ ১৪ মে ২০১৯ | আপডেট: ১৬:৪৩ ১৪ মে ২০১৯

দীর্ঘ একবছর প্রতিক্ষার পর গতকাল সোমবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়েছে। এখানে স্থান পেয়েছে ৩০১ একজন সদস্য। তবে কমিটির তালিকা গণমাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ার পর থেকে চলছে আলোচনা সমলোচনা। এর জেরে দুপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

এতে আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন। ঘোষিত কমিটিতে পদ পাওয়া না পাওয়া নিয়ে এখনও উত্তেজনা বিরাজ করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। চলছে সামাজিক যোগাযোগ ক্ষোভ প্রকাশ।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান না পেয়ে ফেসবুকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখার নেত্রী জারিন দিয়া (ক্যান্ডেল)। তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য বলে ফেসবুকে লিখেছেন। এর আগে তিনি গণিত বিভাগ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে উদ্দেশ করে ফেসবুকে জারিন দিয়া লিখেছেন,রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং গোলাম রাব্বানী ভাই আপনাদের মধুভর্তি মেয়ে লাগে। বড় বড় প্রোগ্রামে মেয়েদের মুখ না দেখলে তো আপনাদের মন ভরতো না। শোভন ভাই আপনি একদিন আমাকে সবার সামনে বলছিলেন কী রে চেহারা সুন্দর আছে; তো সেজেগুজে আসতে পারো না! আমি সেজেগুজে আসতে পারি নাই দেখে আমাকে কমিটিতে রাখলেন না?

আপনারা যেসব মেয়েকে কমিটিতে রেখেছেন তারা কয়দিন থেকে রাজনীতি করে! আপা কি জানেন?? আর নিজে বিবাহিত বলে কমিটিতে দুনিয়ার বিবাহিত মেয়েদের রেখেছেন!!

আর গোলাম রাব্বানী ভাই আমাকে সবার সামনে বলছিলেন দুইদিনের মেয়ে কেমনে পোস্ট পাইছো বুঝি নাই! কয়জনের বেডে গেছো রিপোর্ট করলেই জানা যাবে। মনে আছে গোলাম রাব্বানী ভাই?????? আমি তখন আপনার যোগ্য কথার জবাব দিয়েছিলাম। আজ তার শোধ নিলেন?????
অনেক তথ্য অপেক্ষা করছে আপনাদের জন্য।
এই বিবাহিত বিতর্কিত কমিটি মানি না; মানবো না...
আমার শ্রমের মূল্য দিতে হবে আপনাদের।

তবে এই অভিযোগের বিষয়ে কোনো উপযুক্ত প্রমাণ থাকলে তা উপস্থাপন করতে বলেছেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। তা না হলে তার বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করবেন বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, সোমবার বিকালে ছাত্রলীগের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হয়। সংগঠনটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন জানান, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদনের পর ৩০১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহসভাপতি হয়েছেন ৬১ জন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন ১১ জন, সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ পেয়েছেন ১১ জন। এ ছাড়া বিষয়ভিত্তিক সব সম্পাদক এবং সহ-সম্পাদক ও উপসম্পাদকের নামও ঘোষণা করা হয়।

এর আগে, ২০১৮ সালের ১১ ও ১২ মে ছাত্রলীগ ২৯ তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে নিজেরা কমিটি করতে ব্যর্থ হলে ৩১ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংগঠনিক অর্পিত ক্ষমতাবলে রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে সভাপতি এবং গোলাম রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক করে কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করেন।

টিআর/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি