ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৭ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ২ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সাংবাদিকের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারে ডুজার সময়সীমা

ঢাবি সংবাদদাতা

প্রকাশিত : ১২:১৯ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্রের সঙ্গে প্রশাসন এবং বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে আপত্তিকর লেখালেখি এবং উপাচর্যের ফেইসবুক আইডি হ্যাক করার অভিযোগে এক ছাত্রীকে বহিস্কার করা হয়েছে। 

এ বহিষ্কার স্বৈরতান্ত্রিক অভিহিত করে তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের জন্য সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (ডুজা)। তিন কার্যদিবসের মধ্যে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার না করলে সারাদেশের ক্যাম্পাস সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দেয় সংগঠনটি।

গতকাল শুক্রবার ডুজার সভাপতি রায়হানুল ইসলাম আবির ও সাধারণ সম্পাদক মাহদী আল মুহতাসিম স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ সময়সীমার কথা বলা হয়। গত বুধবার বহিষ্কার হওয়া ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ও একটি ইংরেজি দৈনিকের বিশ্বিবিদ্যালয় প্রতিবেদক। 

ডুজার বিবৃতিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয় কোনো স্বৈরতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান নয়, একটি বিশ্বজনীন প্রতিষ্ঠান। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সমাজসচেতন শ্রেণি। বিভিন্ন অসঙ্গতি নিয়ে তাঁরা কথা বলবেন, লিখবেন; এটিই স্বাভাবিক। গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি শিক্ষার্থীর অধিকার রয়েছে মন খুলে মতামত প্রকাশ করার। বাংলাদেশের সংবিধানেও মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা হয়েছে। এটি গণতন্ত্রের সৌন্দর্য। সেই হিসেবে ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া তাঁর বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লিখতেই পারেন। কিন্তু এর জেরে তাঁকে বহিষ্কার করা চরম হাস্যকর ঘটনা।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মত প্রকাশ করার কারণে একজন শিক্ষার্থী ও সাংবাদিককে বহিষ্কার করার মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ চরম স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবের পরিচয় দিয়েছে। এটি অযৌক্তিক ও অগ্রহণযোগ্য। ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণে শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পশ্চাৎপদ ধ্যানধারণায় বিশ্বাসী বলে প্রমাণ দিয়েছে। একজন গণমাধ্যমকর্মীর ওপর এ ধরনের আচরণে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক পরিবারের সদস্যরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

একজন গণমাধ্যমকর্মীর ওপর এ ধরনের আচরণে বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক পরিবারের সদস্যরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন উল্লেখ করে নেতৃবৃন্দ বলেন, আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে ফাতেমা তুজ জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করতে হবে। অন্যথায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে নিয়ে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।

এমএস/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি