ঢাকা, সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২১:৪৮:৪৪

Ekushey Television Ltd.

হাবিপ্রবির শিক্ষককে হুমকি

হাবিপ্রবি সংবাদদাতা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৪:২০ পিএম, ৮ জুলাই ২০১৮ রবিবার

দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষক ও কর্মকর্তাকে মুঠোফোনে হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. তারিকুল ইসলাম বলেন, বৃহস্পতিবার বেলা ২টা ২৫ মিনিটের দিকে আমার ব্যবহৃত মুঠোফোনে কল আসে। ফোন রিসিভ করলে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করে এবং বেশি বাড়াবাড়ি না করার জন্য হুমকি দেয়।

তিনি আরও বলেন, আমি এই প্রশাসনের পক্ষ হয়ে কাজ করি বিধায় সাবেক ও বর্তমানের গুটি কয়েক শিক্ষক নিজেদের মধ্যে আঁতাত করে ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করতে আমার ওপর উঠে পড়ে লেগেছে এবং আমি মনে করি তারাই এ কাজটি করিয়েছে। সাবেক প্রশাসনের আমলেও তারা আমাকে বহিষ্কার করার জন্য চেষ্টা করেছিল বলেও অভযোগ করেন তিনি। থানায় একটি জিডিও করে রেখেছেন বলে জানান
তিনি।

সুলতান মাহমুদ নামের হিসাব শাখার এক কর্মকর্তা অভিযোগ করে বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৮টা ৩৮ মিনিটের দিকে কল আসে, রিসিভ করা মাত্রই অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে হাত পা ভেঙ্গে ফেলার হুমকি দেয় সেই সঙ্গে বাড়ি থেকে বের না হওয়ার হুশিয়ারি দেন। নিজের
নিরাপত্তার জন্য পরে আমি থানায় একটি জিডি করি।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকটর অধ্যাপক মো. খালেদ হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমরা তার কাছ থেকে একটা অভিযোগ পেয়েছি, আর যেনাম্বার হতে তার কাছে ফোন এসেছে সেটি দেশীয় নাম্বার না হওয়ার এখন পর্যন্ত হুমকি দাতাকে জানা যায়নি। এ ব্যাপারে পরে সিন্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, উপাচার্য প্রফেসর ড. মু আবুল কাসেম আসার পর থেকে একটি পক্ষ ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করতে একের পর এক ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে । আর যে দুজনকে ফোনে হুমকি দেওয়া হয়েছে তারা দুজনই সার্বিকভাবে উপাচার্যকে সহযোগিতা করে থাকেন।
দিনাজপুর কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেদওয়ানুর রহিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, তারা আমাদের এখানে জিডি করেছেন।

এসএইচ/



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি