ঢাকা, সোমবার   ১৭ জুন ২০২৪

কুড়িগ্রামে শীতের তীব্রতায় জীবনযাত্রা ব্যাহত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৪৩, ১০ জানুয়ারি ২০২৪

তাপমাত্রা কমতে থাকায় কুড়িগ্রামে বেড়েছে শীতের তীব্রতা। শীতের দাপটে কাবু হয়ে পড়েছে দিনমজুর ও খেটে খাওয়া মানুষজন। ঠাণ্ডায় ব্যাহত হয়ে পড়েছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।  

আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে শীতার্ত মানুষের জন্য জেলা প্রশাসন থেকে ৪৩ হাজার কম্বল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে বিতরণ করা হয়েছে। 

কনকনে ঠাণ্ডায় খড়কুটো জ্বালিয়ে উষ্ণতা নিচ্ছেন হত-দরিদ্র মানুষজন। শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে শিশু ও বয়স্করা। গতকালই ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে ২০ শিশু। সর্বমোট ভর্তি রয়েছে ৪৩ শিশু। সেখানে গাদা-গাদি করে চিকিৎসা নিচ্ছে তারা।

এদিকে উত্তরীয় হিমেল হাওয়ায় শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় কাহিল হয়ে পড়েছে নদ-নদী তীরবর্তী চর ও দ্বীপ চরের মানুষগুলো। শীত ও কনকনে ঠান্ডা কাজে যেতে না পারায় কষ্টে শ্রমজীবীরা।  

জেনারেল হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে ভর্তি এক শিশুর মা রশিদা বেগম বলেন, শিশুর ডায়রিয়া নিয়ে গত পাঁচদিন আগে হাসপাতালে ভর্তি। এখন ডাইরিয়া ভালো হয়েছে, এখন নিউমোনিয়া ধরা পড়েছে। আরও যে কয়দিন হাসপাতালে থাকা লাগে আল্লাহ জানেন।

ভ্যানচালক বাদশাহ মিয়া বলেন, দুদিন ধরে বৃষ্টির মতো কুয়াশা পড়ছে। এমন কুয়াশায় কাজে করা যায় না। গতকাল সারাদিনে রোদে উঠে নাই। খুব সমস্যা বর্তমানে কাজ করা।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার বলেন, তাপমাত্রা আরও কয়েকদিন এমন থাকবে। তবে এই মাসে আরও একটি শৈত্যপ্রবাহ এ জেলার উপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে। 

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি