ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১, || আষাঢ় ৪ ১৪২৮

ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে বড় ভাইকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নরসিংদী প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:১৪, ৯ মার্চ ২০২১

নরসিংদীর মাধবদীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে বড় ভাইকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ছোট ভাইর বিরুদ্ধে। এই হত্যাকাণ্ডের ৮ দিন পর পুতে রাখা মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (৯ মার্চ) দুপুরে বাড়ির পাশের একটি পুকুরের পাড়ে মাটি খুঁড়ে নিহত সোহাগের মরদেহ উদ্ধার করে স্থানীয় পুলিশ। 

নরসিংদীর মাধবদীর মহিষাশুরা ইউনিয়নের দাইরের পার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সোহাগ মাধবদী থানার দাইরের পাড় গ্রামের সানাউল্লাহ মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের মা এবং ছোট ভাইকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ২ মার্চ রাতে নিহত সোহাগ নেশা জাতীয় দ্রব্য পান করে বাড়িতে আসে। ওই সময় সোহাগ তার মা’র সাথে রাগারাগি ও গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে সোহাগ উত্তেজিত হয়ে তার মাকে মারধোর করতে থাকে। এতে তার বাবা বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে তাকেও মারধোর করে। এক পর্যায়ে ছোট ভাইয়ের স্ত্রীকে শ্লীলতা হানির চেষ্টাও করে সোহাগ। এ সময় ছোট ভাই জহিরুল ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে সোহাগের মাথায় আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনা চাপা দিতে নিহতের লাশ বাড়ির পাশে একটি পুকুর পাড়ে মাটি চাপা দিয়ে লাশ গুম করে রাখা হয়।
  
এদিকে সোহাগকে দেখতে না পেয়ে স্থানীয় লোকজন ৯৯৯ ফোন করে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে মাধবদী থানা পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেন। এরই মধ্যে মাধবদী থানা পুলিশ নিহতের ছোট ভাইদের দুই স্ত্রীকে আটক করে। পরে তাদের দেয়া তথ্যে সোহাগের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দুজ্জামান বলেন, পারিবারিক কলহের জের ধরেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। 

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি