ঢাকা, সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ৪ ১৪২৮

সাপের ছোবলে মৃত্যু নিশ্চিত করলেও মানতে নারাজ পরিবার

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ০৮:৫৪, ১৮ জুলাই ২০২১

নিহত সুমন মিয়া

নিহত সুমন মিয়া

বিষাক্ত এক সাপের ছোবলে সুমন মিয়া (৪০) এক চা শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। নিশ্চিতও করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তবে তা না মেনে ওঝা দিয়ে শেষ চিকিৎসা করাচ্ছে পরিবার। এমনই ঘটনা ঘটেছে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে। শনিবার (১৭ জুলাই) দুপুরে জেরিন চা বাগানে কাজ করার সময় বিষাক্ত সাপটি তাকে ছোবল মারে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেরিন চা বাগানের ব্যবস্থাপক সেলিম রেজা চৌধুরী জানান, শনিবার দুপুরে তাদের বাগানের পুরনো শ্রমিক মৃত বাবুল মিয়ার ছেলে সুমন মিয়াকে একটি বিষাক্ত সাপ ছোবল দেয়। 

তিনি জানান, সুমন নিজেই সাপ ধরতে জানতেন এবং দু'দিন আগে এই সাপটিকে তিনি নিজেই ধরেছিলেন। তিনি চা বাগানে কাজের পাশাপাশি সাপে কামড়ের জড়ি বিক্রি করতেন। নিজে সাপের জড়ি দিতেন তাই প্রথমে নিজেই নিজের চিকিৎসা শুরু করেন। কিন্তু তার অবস্থা যখন অবনতির দিকে যায়, তখন তিনি (সেলিম রেজা) খবর পান। তখনই তাকে বাগানের গাড়ি দিয়ে প্রথমে শ্রীমঙ্গল ৫০ শয্যা হাসপাতালে এবং পরে সেখান থেকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে গেলে সন্ধ্যার দিকে সেখানে তার মৃত্যু হয়। 

এদিকে মৃত্যুর পর রাতেই তার মরদেহ চা বাগানে নিয়ে আসা হয়। তবে তার পরিবারের লোকজন তাকে দাফন না করে সাপে কাটার ওঝা ডেকেছেন।

৩নং শ্রীমঙ্গল ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বিশ্বজিৎ দেববর্মা জানান, সুমনের বাবাও সাপ ধরা জানতেন। সুমন মিয়াও সাপ ধরতে পারতো। এ কাজ সুমনের ভাইসহ পরিবারের অনেকেই জানেন। তিনি জানান, হাসপাতাল থেকে তার মৃত্যু নিশ্চিত করলেও তারা শেষ চেষ্টা হিসেবে ওঝা ডেকেছেন। 

এনএস//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি